Sharing is caring!

পদকপ্রাপ্তদের মাঝে একুশে পদক

বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী

এ বছরের একুশে পদকপ্রাপ্তদের মাঝে পদক বিতরণ করলেন বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ (বুধবার) বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ বছরের পদকপ্রাপ্তদের হাতে মর্যাদাপূর্ণ এই পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী। বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে দেশের ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিকের হাতে তুলে দেয়া হলো একুশে পদক-২০১৯ ।

আজ বুধবার রাজধানীতে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই নাগরিকদের ও তাদের প্রতিনিধিদের হাতে এ পদক তুলে দেন।

এবার একুশে পদক পেলেন যারা
ভাষা আন্দোলনে অবদানের জন্য অধ্যাপক হালিমা খাতুন (মরণোত্তর), অ্যাডভোকেট গোলাম আরিফ টিপু ও অধ্যাপক মনোয়ারা ইসলাম।
শিল্পকলা-সংগীত
আজম খান (মরণোত্তর), সুবীর নন্দী ও খায়রুল আনাম শাকিল সংগীতে একুশে পদক পেলেন।
শিল্পকলা-অভিনয়
লাকী ইনাম, সুবর্ণা মুস্তাফা ও লিয়াকত আলী লাকী অভিনয় ক্ষেত্রে একুশে পদকের পেয়েছেন।
শিল্পকলা-আলোকচিত্র
সাইদা খানম আলোকচিত্র ক্যাটাগরিতে একুশে পদক পান।
শিল্পকলা-চারুকলা
চারুকলায় একুশে পদক পান জামাল উদ্দিন আহমেদ।
মুক্তিযুদ্ধ
ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য মুক্তিযুদ্ধ ক্যাটাগরিতে একুশে পদক পেলেন।
গবেষণা
ডক্টর বিশ্বজিৎ ঘোষ ও ড. মাহবুবুল হক গবেষণায় একুশে পদক পান।
শিক্ষা
ডক্টর প্রণব কুমার বড়ুয়া শিক্ষায় একুশে পদক পেয়েছেন।
ভাষা ও সাহিত্য
এ ক্যাটাগরিতে পদক পেয়েছেন রিজিয়া রহমান, ইমদাদুল হক মিলন, অসীম সাহা, আনোয়ারা সৈয়দ হক, মঈনুল আহসান সাবের ও হরিশংকর জলদাস।

প্রত্যেককে ৩৫ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক, এককালীন দুই লাখ টাকা ও একটি সম্মাননাপত্র দেয়া হয়। ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে বাংলাদেশের বিশিষ্ট সাহিত্যিক, শিল্পী, শিক্ষাবিদ, ভাষাসৈনিক, ভাষাবিদ, গবেষক, সাংবাদিক, অর্থনীতিবিদ, দারিদ্র্য বিমোচনে অবদান রাখা ব্যক্তি, সামাজিক ব্যক্তিত্ব ও প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় পর্যায়ে অনন্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ১৯৭৬ সাল থেকে প্রতি বছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এই পুরস্কার দিয়ে আসছে বাংলাদেশ সরকার।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *