Sharing is caring!

পদ্মা সেতুর বাস্তব কাজের অগ্রগতি হয়েছে শতকরা ৮৩ দশমিক ৫০ ভাগ। আর্থিক অগ্রগতি হয়েছে শতকরা ৭৩ দশমিক ৩৭ ভাগ। নদীশাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি শতকরা ৬২ দশমিক ৫০ ভাগ এবং সংযোগ সড়কের অগ্রগতি হয়েছে শতকরা ১০০ ভাগ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২১ সালের জুনে পদ্মা সেতু চালু হবে। মাওয়া প্রান্তে নদী শাসনের কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। মাওয়ার উজানে পুরনো ফেরি ঘাট এবং পাশের কান্দিপাড়া মসজিদ বরাবর এলাকায় এই কাজ হচ্ছে। কান্দিপাড়া মসজিদ বরাবর এলাকায় থেকে ‘ইন টার্মিনেশন’ বা বড় একটি বাঁক হবে। নদী শাসনের জন্যই বাঁকটি করা হবে। সেই লক্ষ্যে এই এলাকায় ইতোমধ্যেই ২৩ একর জমি অধিগ্রহণ হয়েছে। অধিগ্রহণকৃত এলাকার ঘরবাড়ি সরিয়ে নেয়ার কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। পদ্মা সেতুর ১৫তম স্প্যান বসছে চলতি মাসেই। বর্ষায় পলি জমে যাওয়ার কারণে নাব্যতার অভাবে স্প্যানবাহী জাহাজ প্রবেশ করতে পারছে না বলে বিলম্ব হচ্ছে। তবে ড্রেজিং করে নাব্য ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। আগামী সপ্তাহে নাব্য সঙ্কট দূর করা সম্ভব হচ্ছে বলে ধারণা করছেন এই প্রকৌশলী। শীঘ্রই ২০ ও ২১ নম্বর খুঁটিতে রাখা স্প্যানটি সরিয়ে এনে স্থায়ীভাবে বসিয়ে দেয়া হচ্ছে ২৪ ও ২৫ নম্বর খুঁটিতে। স্থান সঙ্কুলান না হওয়ায় এই দুই খুঁটি তখন প্রস্তুত না থাকায় ২৪ ও ২৫ নম্বর খুঁটির নির্দিষ্ট স্প্যানটি সেখানে (২০ ও ২১ নম্বর খুঁটিতে) বসানো হয়েছিল। এদিকে ১৫তম স্প্যান বসানো হচ্ছে ২৩ ও ২৪ খুঁটিতে। এছাড়া ১৬ ও ১৭ খুঁটিও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এরপরই ১৬তম স্প্যান বসবে এই দু’খুঁটিতে। সেতুর ৪২টি খুঁটির মধ্যে ৩১টি সম্পন্ন হওয়ায় বাকি রয়েছে মাত্র ১১টি খুঁটির কাজ। সেতুগুলোর কাজও দ্রুত এগিয়ে চলেছে বলে শুক্রবার দায়িত্বশীল প্রকৌশলী জানিয়েছেন। সেতুর ৬, ৭, ৮, ১০, ১১, ২৬, ২৭, ২৯, ৩০, ৩১ ও ৩২ নম্বর খুঁটিতেই এখন কর্মযজ্ঞ চলছে। জাজিরা প্রান্তে সেতুর ২৪টি সুপার টি বসে গেছে। আর ৪২টি আই গার্ডারের সব কটিই বসেছে। রেলওয়ে স্লাব বসেছে ৩২২টি। রোড ওয়ে স্লাব বসেছে ৩৯টি। স্প্যানে বসানোর পরে স্লাবগুলো বসানোর কাজ চলছে। সেতুতে রেলওয়ে স্লাব প্রয়োজন ২৯৫৯টি। তার মধ্যে ৯৭টি বাকিমাত্র। ২৮৬২টি স্লাবই নির্মাণ হয়ে গেছে। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং সংযোগ সেতুসহ প্রায় ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী ২০২১ সালের জুনের মধ্যেই পদ্মা সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচল শুরু করবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *