Sharing is caring!

নাচোল সংবাদদাতা \ নাচোল আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজু আহম্মেদের পরকীয়া প্রেমের টানে ওই বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকাকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হলেও অভিভাকরা পড়েছেন দুঃচিন্তায়। জানা গেছে, নাচোল খুরশেদ মোল্লা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পেছনে একবছর পূর্বে নাচোল নিউ এশিয়ান স্কুল এন্ড কলেজ নামে চাঁপাইনবাবগঞ্জে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নাচোল শাখা অফিসের উদ্বোধন করেন। শুরু থেকে বিদ্যালয়টি একটি ফ্লাট বাসা ভাড়া করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু করেন। বাসার মালিক রাজু আহম্মেদ সিংগাপুর প্রবাসী। শুরুর পর থেকে বিদ্যালয়টি পূর্ণতা না পেলে ওই ভবনের মালিক রাজু আহম্মেদ শিক্ষার্থীদের কোলাহল দেখে নিজেই আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজ করার সিদ্ধান্ত নেয়। ফলে পূর্বের শিক্ষার্থীরা  তার ব্যবহৃত বাসাতেই আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজ প্রতিষ্ঠানে অন্তভূক্ত হয়। সম্প্রতি ওই প্রতিষ্ঠানে উপজেলার কসবা ইউনিয়নের ছুটিপুর গ্রামের জনৈক সিরাজুল ইসলামের মেয়ে জীয়াসমিন খাতুন সহকারী শিক্ষিকার হিসেবে কাজ করতেন। এক পর্যায়ে ওই শিক্ষিকার উপর কু নজর পড়ে প্রতিষ্ঠানের এমডি রাজু আহম্মেদের। গড়ে উঠে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক। সিঙ্গাপুর প্রবাসী ও প্রতিষ্ঠানের এমডি রাজু আহম্মেদের স্ত্রী তার ¯^ামীর পরকীয়া সম্পর্কের বিষয়টি জানতে পেরে আতœহত্যা করার চেষ্টা করে, লোক জানাজানির কারনে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পায়। এক পর্যায়ে রাজুর পরিবার ও তার শশুরের পরিবার বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে রাজুকে সতর্ক করতে থাকলে সে ওই শিক্ষিাকে নিয়ে পালিয়ে যায়।  এমডি’র এ ঘটনার পর থেকে শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। এ বিষয়ে ওই  প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মিজানুর রহমানের এর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে এ বিষয়ে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে তিনি বলেন এমডিকে বাদ দিয়েই তারা কয়েকজন শিক্ষক/ শিক্ষিাকা পুণরায় প্রতিষ্ঠান গড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে কর্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *