Sharing is caring!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি \ রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার নওয়াপাড়া গ্রামে কলেজ ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা নিতে গড়িমসি, আসামিদের গ্রেফতার না করার অভিযোগ ওঠেছে। শুক্রবার বেলা ১১টায় রাজশাহী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ তোলেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা রিনা বেগম। সংবাদ সম্মেলনে রিনা বেগম বলেন, গত ২৮ তারিখ সন্ধ্যায় উপজেলার নয়াপাড়া গ্রামে তার নানীর বাড়িতে বেড়াতে যায় মেয়ে। রাতে বাড়ি ফেরার পথে তার প্রাক্তন স্বামী শাহজাহান তার দলবল নিয়ে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে গিয়ে একটি পেয়ারা বাগানে দল বেঁধে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। অবস্থার উন্নতি না হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, এ  বিষয়ে পুঠিয়া থানায় মামলা করতে গেলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা টাকা নিয়ে মিমাংসা করতে বলেন এবং মামলা নিতে নানা টালবাহানা করেন। পরে ঘটনার প্রায় ১৪ দিন পর গত বৃহস্পতিবার মামলাটি গ্রহণ করে প্রধান আসামি শাহজাহানকে পুলিশ গ্রেফতার করে। কিন্তু এখনো অপর দুই আসামী ফারুক ও শামীম প্রকাশ্যে এলাকায় ঘোরাফেরা করলেও অজ্ঞাত কারণে তাদের গ্রেপ্তার করছে না পুলিশ। এ সুযোগে আসামিরা মামলা তুলে নিতে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। এ অবস্থায় তারা চরম নিরাপত্তাহীনতার মাঝে দিন কাটছেন। দ্রুত সকল আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য সংসাদ সম্মেলন থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। এ সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ভুক্তভোগীর বাবা আরিফুল ইসলাম, খালু জাহাঙ্গীর আলম, খালাতো ভাই হাসান প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *