Sharing is caring!

নাচোল প্রতিনিধি \ জেলায় পুলিশ কর্মকর্তাকে ব্ল্যাকমেইল করার ঘটনা ঘটেছে। সদ্য যোগদান করা নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেনকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে কোন সুবিধা আদায়ের জন্যই এই ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা, বলে ধারণা করছে পুলিশ ও স্থানীয়রা। জানা গেছে, জেলার নাচোল থানায় জিডি করার অযুহাতে প্রবেশ করে ওসি আনোয়ার হোসেনের চেম্বারে কথাবার্তা রেকর্ড করার মাধ্যমে ফাঁসানোর চেষ্টাকালে হাতেনাতে এক নারী আটক হয়েছে। নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক পৌনে ১০টার দিকে উপজেলার শিবপুর শিয়ালা গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে রোকসানা খাতুন(২৫) জিডি কারার কথা বলে তাঁর কার্যালয়ে আসেন। এসময় ওই মহিলা কৌশলে উভয়ের কথাবার্তা মোবাইল ফোনে ভিডিও রেকর্ড করে। বিষয়টি বুঝতে পেরে অফিসার ইনচার্জ ওই মহিলাকে ভিডিও রেকর্ড করার কারণ জানতে চাইলে প্রথমে অ¯^ীকার করে। পরে তার মোবাইল ফোন চেক করলে ধারণ করা উভয়ের কথপোকথনের ভিডিও পাওয়া যায়। ওই নারীকে ভিডিও করার কারণ জানতে চাইলে তার বড়ভাই রফিকুল ইসলাম(বাদশা)’র নির্দেশে ভিডিও করেছে বলে আটক রোকসানা ¯^ীকার করে। এব্যাপারে নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানান, আমার সাথে কথাবার্তা রেকর্ড করে রেখে পরে বিভিন্ন কায়দায় হয়তো সুযোগ সুবিধা আদায়ের চেস্টা করতো। কিন্তু ওই মহিলার কথাবার্তা ও আচরণে আমার সন্দেহ হয়। বিষয়টি বুঝতে পেরে প্রতারণাকারী মহিলার বিরুদ্ধে ব্ল্যাকমেইল করার অপরাধে একটি মামলা হয়েছে এবং আটক রোকসানাকে ২১ জুলাই জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *