Sharing is caring!

গত ২৮/০১/২০১৭ ইং তারিখ ‘দৈনিক কালের কণ্ঠে’র শেষ পাতায় “সরেজমিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ এমপি ওদুদের ডান হাত বুলির অপকর্মে ডুবছে আওয়ামীলীগ”। আওয়ামীলীগ নেতা, কলেজের প্রিন্সিপাল, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, প্রভাবশালী ঠিকাদার-এসব পরিচয় ছাপিয়ে যা আলোচনায়, তা হচ্ছে তাঁর নিয়ন্ত্রণেই গোটা সদর উপজেলা। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ বিশ্বাসের আস্থাভাজন এজাবুল হক বুলি। সদর উপজেলার আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষের পদও বাগিয়ে নিয়েছে তিনি। এমপির ডান হাত বলে পরিচিত এই বুলি ঠিকাদার ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ, বালুমহাল, নিয়োগ বাণিজ্য, সীমান্ত পেরিয়ে ভারত থেকে আসা গরুতে চাঁদাবাজি করে থাকেন। টিআর, কাবিখাসহ সব সরকারি বরাদ্দ এমপির হয়েই দেখভাল করে থাকেন বুলি। এমপি ওদুদের ক্যাডার বাহিনীর নিয়ন্ত্রণও বুলির হাতেসহ বিভিন্ন কথা ছাপানো হয়েছে। যা আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। আমাকে জড়িয়ে যে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পুর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন। “প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়া সমিতির কার্যক্রম সচল করতে আমাকে ঠিকাদার সমিতির উন্নয়নের জন্য আহবায়ক হিসেবে জোরপুর্বক দায়িত্ব চাপিয়ে দেয়া হয়েছে ঠিকাদার সমিতির নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে। বিগত দিনে বালুমহল বিক্রি হতো মাত্র ৭ লক্ষ টাকায়, সেখানে এবছর ২৮ লক্ষ টাকায় সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে আমাকে বালু মহল ইজারা দেয়া হয়েছে। বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর কলেজের চরম দূর্দশার সময় কলেজকে বাঁচাতে কলেজের পরিচালনা পর্ষদ ও সকল শিক্ষক-কর্মচারীদের (তাঁর ছেলে জুবায়ের আহমেদসহ) স্বাক্ষরে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসেবে আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়। এছাড়া আমাকে জড়িয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ ছাপানো হয়েছে। সমাজে আমার সম্মান হেয় করার জন্যই এমন সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। আমি প্রকাশিত এই সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

আলহাজ্ব অধ্যক্ষ এজাবুল হক বুলি
আহবায়ক
জেলা ঠিকাদার সমিতি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *