Sharing is caring!

phoo editor new_1459258501301মোহাঃ ইমরান আলী, শিবগঞ্জ থেকে \ আসন্ন ৭মে অনুষ্ঠিতব্য শিবগঞ্জ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহন। এই উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছে ৬১, সাধারণ আসনে ৫০২ ও সংর¶িত আসনে ১৮১জন প্রার্থী। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সাধারণ ভোটার সামনে প্রতিশ্রæতির ঝুঁড়ি নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছে। এই নির্বাচনী প্রতিবেদনটি ৩ পর্বে বিভক্তি। প্রথম পর্বে শ্যামপুর, শাহাবাজপুর, মোবারকপুর ও চককীর্ত্তি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মতামত তুলে ধরা হলো।
শ্যামপুর ইউনিয়ন ঃ
উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন ৪ জন প্রার্থী। এরা হলেন-আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী আসাদুজ্জামান ভোদন (নৌকা), বিএনপি মনোনিত প্রার্থী খাইরুল ইসলাম(ধানের শীষ), ¯^তন্ত্র প্রার্থী কামরুল হাসান (মোবিন মিঞা) (আনারস) ও  নওয়াব মোহাম্মদ শামসুল হোদা(অটোরিক্সা)।
বিএনপি মনোনিত প্রার্থী খাইরুল ইসলাম (ধানের শীষ):
তিনি আমি ১৯৯১ সাল থেকে রাজনীতির সাথে জড়িত। আমি সব সময় আমার নির্বাচনী এলাকা সর্ব সাধারণ মানুষের সাথে মিশে আছি। আমাকে সর্ব সাধারণ মানুষ ভালবাসেন। তাই আমি আশাবাদি যদি সুষ্ঠু ও নিরপে¶ নির্বাচন হয় তাহলে আমি শতভাগ ভোটযুদ্ধে জয়লাভ করবো। তিনি আরো বলেন, এবারের নির্বাচনে আমার শ্যামপুর ইউনিয়নের দু’টি কেন্দ্র কে ঝুঁকিপূর্ণ মনে করছি। এই দু’টি কেন্দ্র হচ্ছে ৬ ও ৭ নম্বর। যা অতিঝুঁকিপূর্ণ। খাইরুল ইসলাম বলেন, আমি যদি নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারি তাহলে শ্যামপুর ইউনিয়নবাসি জন্য যে সমস্ত অসমাপ্ত কাজ রয়েছে সে সমস্ত কাজ সমাপ্ত করার চেষ্টা করবো। ইউনিয়নের জনসাধারণের সাথে সব বিষয়ে আলোচনা মাধ্যমে সব ধরণের সমস্যার সমাধান করা হবে। বাল্য বিয়ে, মাকদাশক্তি, অন্যায়-অনিয়ম, দূর্নীতি বিরুদ্ধে সচ্চার ও বলিষ্ঠ এবং প্রতিরোধের প্রধান ল¶্য থাকবে।
আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী আসাদুজ্জামান ভোদন (নৌকা):
আসাদুজ্জামান ভোদনের মতামত নেয়ার জানার জন্য যোগাযোগ করা হলে তিনি এই প্রতিবেদকের সাথে কোন ধরণের যোগাযোগ করেননি। তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে সংযোগের চেষ্টা করলে তিনি রিসিভ না করে রিং কেটে দিয়ে মুঠোফোনটি বন্ধ করে দেন।
¯^তন্ত্র প্রার্থী কামরুল হাসান (মোবিন মিঞা):
তিনি জানান, নির্বাচনে অংশগ্রহন ও তা প্রচার-প্রচারণা করা সবার অধিকার রয়েছে। আমি ¯^তন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস প্রতীক নিয়ে ভোটযুদ্ধে লড়াই করছি। প্রচারণা চলাকালে আমার সমর্থক ও কর্মীদের বিভিন্ন নম্বর থেকে নামে-বেনামে আমার প্রচারণা না করার জন্য বাঁধা এমনকি বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে নৌকা প্রতীকে কর্মী ও সমর্থকরা। তিনি বলেন আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি আমার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী হিসেবে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী খাইরুল ইসলামকে মনে করছি। খেলায় জয়-পরাজয় আছে। এটা হবে। আমি শতভাগ আশাবাদি যদি সুষ্ঠু ও নিরপে¶ নির্বাচন হয় তাহলে আমি বিজয় লাভ করবো ইনআল্লাহ। মোবিন মিঞা বলেন, আমি নির্বাচিত হলে আমার প্রথম কাজ হবে গ্রাম্য আদালতে ইউনিয়নবাসির আনিত অভিযোগ ও মামলা নিরপে¶ ভাবে সমাধান করা। আমি নির্বাচিত হলে শ্যামপুর ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ও মডেল ইউনিয়ন পরিষদের পরিণত করবো। এই ইউনিয়নের কোন বাল্য বিয়ে, মাদকাশক্তি, অনিয়ম, দূর্নীতি হতে দিবোনা। অতিদরিদ্র মেধাবী শি¶ার্থী আর্থিক সহায়তা প্রদান করে তাদের ভবিষ্যতের ল¶্যে পৌছে দেয়া চেষ্ঠা, রাস্তা-ঘাট মেরামতসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করবে বলে জানান কামরুল হাসান(মোবিন মিঞা)। এছাড়া আরেক ¯^তন্ত্র প্রার্থী নওয়াব মোহাম্মদ শামসুল হোদা(অটোরিক্সা)ও প্রার্থীকে পাওয়া যায়নি। এ ইউনিয়নে আগামী ৭ মে  ১৪ হাজার ৩৪৯ পুরুষ ও ১৩ হাজার ৩২০ জন মহিলা ভোটার মোট ২৭ হাজার ৬৬৯ জন ভোটার তাদের ভোটারাধীকার প্রয়োগ করবে।
শাহাবাজপুর ইউনিয়ন:-
শাহাবাজপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন । এরা হলেন-আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী নিজামুল হক রানা (নৌকা) ও ¯^তন্ত্র প্রার্থী তোজাম্মেল হক (আনারস)। এই ইউনিয়নের ¯^তন্ত্র প্রার্থী ও তার কর্মী সমর্থকরা চরম আতঙ্কে রয়েছে।
¯^তন্ত্র প্রার্থী তোজাম্মেল হক:
(আনারস) প্রতীকের এই প্রার্থী অভিযোগ করেন, নৌকা প্রতীকের কর্মী ও সমর্থকরা ৬ নম্বর ওয়ার্ডে তাদের কোন প্রচার-প্রাচারণা এমনকি পোষ্টার টাঙাতে দিচ্ছেনা। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে। এছাড়া পুলিশি হয়রানি তো আছে। তোজাম্মেল হক আরো বলেন, আমার কর্মী আবদুর রাজ্জাক, এরফান ও সাদিকুল ইসলামকে কোন কারণ ছাড়াই পুলিশ গ্রেফতার করে একাধিক মামলা দিয়েছে। অথচ তাদের বিরুদ্ধে থানায় কোন মামলা ছিল না। তাদের গ্রেফতার দেখে জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। তারা বলছে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে তো? তিনি বলেন ইতিপূর্বে আমরা এই ইউনিয়নের ৬টি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ মনে করে উপজেলা নির্বাচন অফিসারকে একটি লিখিত আবেদন পাঠিয়েছি। এর মধ্যে রয়ে তের রশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভোলামারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাহেবনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ধোবড়া আনক উচ্চ বিদ্যালয় ও বালিয়াদিঘী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এই ৬টি কেন্দ্রকে আমরা অতিঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র বলে মনে করছি।
আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী নিজামুল হক রানা:
আওয়ামীলীগ মনোনিত এই প্রার্থীর সাথেও মতামত নেয়ার জানার জন্য যোগাযোগ করা হলে তিনি এই প্রতিবেদক সাথে কিংবা তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে রিং দিলে তা রিসিভ না করেননি। এই ইউনিয়নে ১৮ হাজার ৩২৮ পুরুষ ও ১৭ হাজার ৪৪৪জন নারী ভোটার মোট ৩৫ হাজার ৭৭২ জন ভোটার তাদের ভোটারাধিকার প্রয়োগ করবে।
মোবারকপুর ইউনিয়ন:
এই ইউনিয়নে ৪ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন। এরা হলেন- জাসদ মনোনিত প্রার্থী ময়জুল ইসলাম(মশাল), বিএনপি মনোনিত প্রার্থী তৌহিদুর রহমান মিঞা(ধানের শীষ), আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী কামাল উদ্দিন (নৌকা), ¯^তন্ত্র প্রার্থী আবদুল মান্নান (আনারস)।
আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী কামাল উদ্দিন (নৌকা):
তরুন প্রজন্ম ও বলিষ্ঠ নেতা হিসেবে পরিচিত আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী কামাল উদ্দিন। তিনি বলেন, আমি ¯^-ইচ্ছায় নির্বাচনে অংশগ্রহন করিনি। আমাকে জনসাধারণ সমর্থন দিয়েছে। বিধায় এই নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছি। এছাড়া দলীয় নেতাকর্মীরাও চান আমি নির্বাচন করি। তাই আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়ে নির্বাচন অংশগ্রহন করতে সগযোগিতা করেছে। আমার বিশ্বাস ও শতভাগ আশবাদি দলীয় প্রতীক নিয়ে আমি নির্বাচিত হবো। নির্বাচিত হয়ে আমার প্রথম কাজ হবে জনসাধারণের মাঝে পানি সরবরাহ করা। কেননা, এই ইউনিয়নবাসি পানির চমর সংকটে পড়ছে। প্রচন্ড খড়া মৌসুমে পানি নীচে নেমে যায়। ফলে ইউনিয়নবাসি টিবওয়ালে পানি পাচ্ছেনা। এছাড়া ইউনিয়নের যে সব অসমাপ্ত কাজ রয়েছে তা সমাপ্ত করবো।
তৌহিদুর রহমান মিঞা(ধানের শীষ):
তৌহিদুর রহমান মিঞা তিনি বর্তমান চেয়ারম্যান। তিনি গত নির্বাচনে ভোটযুদ্ধে জয়লাভ করেন। তিনি জানান, গত নির্বাচনে আমি নির্বাচিত হয়েও জনসাধারণের তেমন উন্নয়ন করতে পারিনি। কারণ আমার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক বিভিন্ন মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন মামলা দিয়ে কারাগার ও বাইরে থাকতে হয়েছে। তারপরও আমি চেষ্টা করেছি এবং কিছু হলেও জনসেবা করেছি। আগামীতেও তা করতে চাই। আমি বিশ্বাস করি, প্রশাসন সুষ্ঠু ও নিরপে¶ একটি নির্বাচন উপহার দিবে ইউনিয়নবাসিকে। আমি সেই বিশ্বাস থেকে বলছি, আসন্ন ৭ মে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে আমি আবারও জয়লাভ করবো। কেননা, জনসাধারণ জানে, আমি তাদের পাশ্বে ছিলাম, আছি ও ভবিষ্যতেও থাকবো। তিনি আরো বলেন, এই ইউনিয়নে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে খাবার পানি সংকট। তাই ইউনিয়নবাসির চাহিদা খাবার পানি। ইতিপূর্বে আমি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় বেশকিছু নলকূপ/টিবওয়াল স্থাপন করেছি। আগামীতেও করবো। এছাড়া বাল্য বিয়ে, মাদকাশক্তি, অনিয়ম, দূর্নীতি হতে দিবোনা। অতিদরিদ্র মেধাবী শি¶ার্থী আর্থিক সহায়তা প্রদান করে তাদের ভবিষ্যতের ল¶্যে পৌছে দেয়া চেষ্ঠা, রাস্তা-ঘাট মেরামতসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করবে বলে জানান তিনি। এই ইউনিয়নে ১০ হাজার ৬১৮ পুরুষ ও ১০ হাজার ১৩২জন নারী ভোটার মোট ২০ হাজার ৭৫০জন ভোটার তাদের ভোটারধিকার প্রয়োগ করবে।
চককীর্ত্তি ইউনিয়ন:
এই ইউনিয়নে ৪ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন। এরা হলেন- চককীর্ত্তি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী আনোয়ার হাসান আনু মিঞা(নৌকা), বিএনপি মনোনিত প্রার্থী মিজানুর রহমান(ধানের শীষ), ¯^তন্ত্র প্রার্থী মোফাখারুল ইসলাম(অটোরিক্সা) ও জাতীয় পার্টি মনোনিত প্রার্থী অন্তর আলী শামীম।
আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী আনোয়ার হাসান আনু মিঞা:
তিনি জানান, আমি নির্বাচনে প্রথমবারের মত অংশগ্রহন করলেও সাধারণ ভোটার কাছ থেকে আশারুপ সাড়া পাচ্ছি। আশাবাদি সাধারণ ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থী বেছে নিয়ে ভোট দিবে। তবে, তিনি বলেন আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমি আমার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী হিসেবে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী মিজানুর রহমানকে মনে করেন বলে তিনি জানান। আনু মিঞা আরো বলেন, যে কোন খেলায় যেমন জয়-পরাজয় আছে। নির্বাচনেও তা রয়েছে। আমি শতভাগ আশাবাদি সুষ্ঠু ও নিরপে¶ নির্বাচন হবে এবং আমি বিজয় লাভ করবো ইনআল্লাহ। এছাড়া আমি নির্বাচিত হলে আমার প্রথম কাজ হবে চককীর্ত্তি ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ও মডেল ইউনিয়ন পরিষদের পরিণত করবো। এই ইউনিয়নের কোন বাল্য বিয়ে, মাদকাশক্তি, অনিয়ম, দূর্নীতি হতে দিবোনা। অতিদরিদ্র মেধাবী শি¶ার্থী আর্থিক সহায়তা প্রদান করে তাদের ভবিষ্যতের ল পৌছে দেয়া চেষ্ঠা, রাস্তা-ঘাট মেরামতসহ বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করবে বলে জানান আনু মিঞা। এছাড়া অপর তিন প্রার্থীকে পাওয়া যায়নি। এ ইউনিয়নে ১২ হাজার ৯৬৭ পুরুষ ও ১২ হাজার ৮১০ জন মহিলা ভোটার মোট ২৫ হাজার ৭৭৭ জন ভোটার তাদের ভোটারাধীকার প্রয়োগ করবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *