Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার:
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৫টি মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে কিছু আমলাতান্ত্রিক জটিলতার কারণে বাস্তবায়ন হতে বিলম্বিত হচ্ছে। মেগা প্রকল্পগুলো হচ্ছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত সরাসরি আন্তঃনগর ট্রেন চালু, মহানন্দা নদীতে রাবার ড্যাম নির্মাণ, মহানন্দা নদী খনন, আধুনিক মানের পর্যটন এলাকা গড়ে তোলা, আধুনিক মানের শিশু পার্ক, জেলার অর্থকরি ফসল আম সংরক্ষণে নেয়া প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের অপেক্ষায় রয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ তথা উত্তরবঙ্গের বলিষ্ঠ নেতৃত্বের অভাবে এবং উর্ধ্বতন স্থানে কর্মকর্তাদের বৈরিতার কারণে দীর্ঘদিনও প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন হচ্ছে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিষয়গুলো তুলে ধরতে গণমাধ্যমের ভূমিকা নেয়া প্রয়োজন। তিনি বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের উন্নয়নে ইর্ষান্বিত হয়ে কিছু বিরোধীদলীয় গণমাধ্যমকর্মী বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডকে জনগনের কাছে তুলে না ধরে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে ষড়যন্ত্র এবং মিথ্যা, বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করছে। তিনি ওইসব গণমাধ্যম কর্মীদের উদ্দেশ্য করেও বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের উন্নয়ন আমার একার উন্নয়ন নয়, পুরো চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীর উন্নয়ন। এই উন্নয়নের সুফল ওই সাংবাদিক বন্ধুরাও ভোগ করছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের উন্নয়নের স্বার্থে তিনি সকল গলণমাধ্যম কর্মীদের সহযোগিতা ও আন্তরিকতা কামনা করেন। তিনি রবিবার বেলা ১১টার দিকে জেলার সদর উপজেলায় সরকারের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন। মতবিনিময়কালে সাংসদ আব্দুল ওদুদ বলেন, মহানন্দা নদীর উপর ২য় সেতু “শেখ হাসিনা” সেতু নির্মাণ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের রেললাইন সংস্কার, ২৫০ সয্যা বিশিষ্ট আধুনিক হাসপাতাল, নবাবগঞ্জ সরকারী কলেজের ভবন ও ছাত্রীনিবাস, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভাকে মডেল হিসেবে উন্নয়ন, রাস্তা ও ড্রেনেজ কাজের উন্নয়ন, আন্তনগর ট্রেন চালুসহ বিভিন্ন উন্নয়নসহ বিভিন্ন খাতে উন্নয়ন হয়েছে। মহানন্দা নদীতে রাবার ড্যাম নির্মাণ, নদী খনন, আধুনিক মানের পর্যটন এলাকা, আধুনিক মানের শিশু পার্ক, জেলার অর্থকরি ফসল আম সংরক্ষণে নেয়া প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের অপেক্ষায় রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত এসব প্রকল্প বাস্তবায়নের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অসহযোগিতা ও বৈরিতার কথা উল্লেখ করে প্রকল্পগুলা বাস্তবায়নে গণমাধ্যমের সহযোগিতা কামনা করেন। এমপি আব্দুল ওদুদ আরো বলেন, আমনুরা রেললাইন বাইপাস উদ্বোধনকালে রেল মন্ত্রী মুজিবুল হক জেলাবাসীকে আশ্বাস দিয়েছিলেন নতুন রেল সংযোগ হলেই আন্তনগর রেলের সংযোগ দেয়ার প্রতিশ্রæতি। সেটাও বাস্তবায়নের অপেক্ষায় জেলাবাসী। প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রæত ১৫৯ কোটি টাকার রাবার ড্যাম প্রকল্প, পর্যটন কেন্দ্র, শিশুপার্ক ও শেখ হাসিনা সেতু হতে বীর শ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সেতু পর্যন্ত সংযোগ সড়ক এবং এ প্রকল্পের আওতায় জেলা শহরের কামাল উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় হতে পুরাতন জেলখানা পর্যন্ত বাইপাস রাস্তা নির্মাণে গৃহীত প্রকল্পগুলোর বর্তমান অবস্থা তুলে ধরেন তিনি। এমপি বলেন জানান, মহানন্দা নদীতে ১৫৯ কোটি টাকার রাবার ড্যাম নির্মাণ ও ৩৭ কিলোমিটার নদী খনন প্রকল্পটি একনেকে পাস হয়েছে গত তিন মাস আগে। ইতোমধ্যে ১২ কোটি টাকা বরাদ্দও দেয়া হয়েছে। কিন্তু পানি উন্নয়ন বোর্ডের দীর্ঘসূত্রিতায় প্রকল্প পরিচালক নিয়োগে তিন মাস পার হয়ে গেছে। আব্দুল ওদুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিশ্রুত প্রকল্পের মধ্যে ঢাকা থেকে সরাসরি আন্তঃনগর ট্রেন অন্যতম। ইঞ্জিন ও বগি ক্রয় হলেই চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকা সরসারি আন্তনগর ট্রেন চালু হবে খুব কম সময়ের মধ্যেই। এজন্য আমনুরায় বাইপাস রেললইনও নির্মাণ করা হয়েছে। অথচ সরাসরি আন্তঃনগর ট্রেন দেওয়া হচ্ছে না। এ ছাড়াও একটি পর্যটন কেন্দ্র, শিশুপার্কসহ অন্যান্য প্রকল্পগুলো ঝুলে আছে। পর্যটন কেন্দের জন্য ৩০ কোটি টাকা পিসি মিটিং এ পাস হয়েছে। এটাও বাস্তবায়নের অপেক্ষায় রয়েছে। এসময় বক্তব্য রাখেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমরান ফারুক মাসুম, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, সহ-সভাপতি হোসেন শাহনেওয়াজ, কোষাধ্যক্ষ রফিকুল আলম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাঃ জোনাব আলী, জেলা স্বাধীন প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ ফারুক আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোরসালিন, সাংবাদিক মোঃ জমসেদ আলী, মেহেদী হাসানসহ অন্যরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অনলাইন সাংবাদিক কল্যান সংস্থা (বসকো)’ সভাপতি মোঃ আকতরুজ্জামানসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াকর্মীরা। মতবিনিময়কালে অতিথি ছিলেন জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাজাহান আলী, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা মোঃ সোহরাব আলী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ নুরুল ইসলাম মিনহাজ, জেলা পরিষদ সদস্য আবুল বাসার, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান টিটো। তিনি বলেন, সঠিক তথ্য তুলে ধরে সংবাদ পরিবেশন করুন। ব্যক্তিগত সুবিধা আদায় বা মান ক্ষুন্ন করার জন্য ষড়যন্ত্রমূলক সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকুন। তাতে উভয়েরই লাভ হবে। এমপি আব্দুল ওদুদ আরও বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়ন বিগত যে কোন সরকারের উন্নয়নকে হার মানিয়েছে। সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সাংবাদিকেরা হচ্ছেন জাতীর বিবেক ও সমাজের দর্পণ। সাংবাদিকদের মাধ্যমেই দেশের জনগন উন্নয়ন দেখতে পায়। সরকারে অর্জিত উন্নয়ন ও নতুন নতুন গৃহীত পদক্ষেপ গুলো জাতীর কাছে তুলে ধরতে গণমাধ্যম কর্মীদের আন্তরিক সহোযোগীতা কামনা করেন। তিনি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের অনেক উন্নতি হয়েছে। আমরা এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে। মহাকাশে এখন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে উৎক্ষপণের মাধ্যমে পৃথিবীর বুকে নিজস্ব স্যাটেলাইটের অধিকারী ৫৭ টি দেশ হিসেবে বাংলাদেশের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। পদ্মা সেতুর মত মেগা প্রকল্পের কাজ সরকারে নিজস্ব অর্থায়নে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। দেশে মাথা পিছু আয় বেড়েছে, বেড়েছে আর্থিক সক্ষমতা। এমপি আব্দুল ওদুদ তার নির্বাচিত আসনের উন্নয়ন তুলে ধরে বলেন, বেকার যুবকদের কর্মমুখী শিক্ষায় শিক্ষিত করতে শিবতলায় যুব উন্নয়ন ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। ওযাগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন তুলে ধরে তিনি বলেন আমার নির্বাচিত আসনের ১৪টি ইউনিয়নের মধ্যে ৭টি ইউনিয়ন হচ্ছে প্রত্যন্ত চরাঞ্চল যেখানকার জনগণ ছিল অবহেলিত। ওই এলাকায় বিদ্যুৎ, চিকিৎসা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল অত্যন্ত নাজুক। নির্বাচিত হবার পর অবহেলিত চরাঞ্চলের কথা চিন্তা করে মহানন্দা নদীতে শেখ হাসিনা সেতু নির্মাণ করে সেখানকার বিদ্যুৎ, চিকিৎসা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। চিৎকিসার ক্ষেত্রে উন্নয়ন তুলে ধরে তিনি বলেন নবাবগঞ্জ সরকারী হাসপাতাল ৫০ শয্যা থেকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে উন্নীতকরণের কার্যক্রম প্রায় শেষের পথে। এখন উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। এটা উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের চিৎকিসার ক্ষেত্রে একটা অভূতপূর্ব সাফল্য আশার কথা ব্যক্ত করেন তিনি। শিক্ষার ক্ষেত্রে তার আসনের সাফল্য তুলে ধরে তিনি বলেন, নবাবগঞ্জ সরকারী কলেজের প্রশাসনিক, একাডেমিক ভবন ও অত্যাধুনিক শহীদ মিনার তৈরী, শাহনেয়ামাতুল্লাহ কলেজের একাডেমিক ভবন, বীরশেষ্ঠ মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর কলেজের ভবন, কৃষ্ণগোবিন্দপুর কলেজের ভবন নির্মাণ সহ অর্ধ শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মানে তার অবদান রয়েছে। আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তরে তিনি বলেন, আমি আশাবাদী, আগামী নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকেই মনোয়ন দেবেন এবং আমি এই আসনে আবারো নির্বাচিত হবো।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *