Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার \ প্রয়াত চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোঃ জাহিদুল ইসলামের প্রথম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সার্কিট হাউস মিলনায়তনে মরহুমের স্মরণে ও আত্মার মাগফেরাত কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল হয়েছে। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্মরণসভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে মরহুমের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোঃ জাকির হোসেন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আফতাব উদ্দিন, জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল হাসান, পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রুহুল আমিন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সাবেক স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক উপ সচিব মোঃ জাফর আলী। মিলাদ মাহফিলে প্রয়াত জেলা প্রশাসকের বিভিন্ন ধর্মীয় পদচারণা বিষয় তুলে ধরেন মাওলানা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, মাওলানা আব্দুল বাশিরসহ অন্যান্য আলেমগন। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মঈনুদ্দীন মন্ডল, এনএসআই’র উপ-পরিচালক আলহাজ্ব মোঃ শামসুজ্জোহা, এরফান গ্রæপের চেয়ারম্যান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বারের সভাপতি ও ‘দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’ এর প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোঃ এরফান আলী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, নবাব অটো রাইস এন্ড ফিড মিলস লিঃ এর ¯^ত্বাধীকারী আলহাজ্ব মোঃ আকবর হোসেন, আলহাজ্ব এফ.কে.এম লুৎফর রহমান, এ্যাড. মিজানুর রহমান, আলহাজ্ব অধ্যক্ষ এজাবুল হক বুলি, ‘দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’ এর সম্পাদক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, পৌরসভার সাবেক মেয়র মাওলানা আব্দুল মতিন, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ ও বিভিন্নস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। দোয়া পরিচালনা করেন কোর্ট জামে মসজিদের ইমাম। এছাড়াও জেলার গণ্যমান্য বক্তিবর্গ মিলাদ  ও দোয়া মাহফিলে অংশ গ্রহন করেন। এদিকে প্রয়াত জেলা প্রশাসক জাহিদুল ইসলামের রুহের মাগফিরাত কামনা করে গ্রীনভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ে সকালে ফাতেহা পাঠ ও দোয়া করা হয় শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের নিয়ে। বক্তারা বলেন, ২০১৬ সালের এই দিনেই জেলার সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে কাঁদিয়ে পরপারে পাড়ি দিয়েছিলেন প্রয়াত জেলা প্রশাসক জাহিদুল ইসলাম। এজন্যই দিনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীর কাছে অত্যন্ত স্মরণীয় হয়ে রয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর সকল বিভাগ নিয়ে যার সর্বক্ষন ছিল চিন্তা-ভাবনা। চাঁপাইনবাবগঞ্জে যোগদান করার পর থেকেই সারাক্ষন ভাবতেন জেলার উন্নয়ন ও সমস্যা সমাধানের জন্য। খুব কম সময় হলেও তাঁর কাজ এবং পরিকল্পনায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের সরকারী ও বেসরকারী প্রশাসন, হতদরিদ্র, সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষসহ সকলের প্রাণের মানুষ হয়ে উঠেছিলেন। বিধাতার ডাকে সাড়া দিয়ে হঠাৎ করেই সকল মায়া ত্যাগ করে চলে গেছেন পৃথিবী ছেড়ে তিনি। আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জকে গ্রীণ সিটি হিসেবে গড়ে তোলার জন্য দিনরাত কাজ করেছেন তিনি। তাঁর ইচ্ছা পুরণের আগেই তিনি চলে গেছেন। বক্তারা তাঁর পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য আগামীতে চেষ্টা চালানোর আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১৭ অক্টোবর সোমবার চাঁপাইনবাবগঞ্জের জনপ্রিয় জেলা প্রশাসক, সাধারণ মানুষসহ সকলের কাছে দরদীমনের মানুষ মোঃ জাহিদুল ইসলাম জেলাবাসীকে কাঁদিয়ে পরপারে পাড়ি দিয়েছিলেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রয়াত জেলা প্রশাসক মোঃ জাহিদুল ইসলাম ২০১৬ সালের ১৭ অক্টোবর সোমবার সকাল সোয়া ১০টায় রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে সভা চলাকালিন সময়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তাৎক্ষনিক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তিনি ২০১৬ সালের ২৬ জানুয়ারী চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন। জেলা প্রশাসক মোঃ জাহিদুল ইসলাম গোপালগঞ্জের সুকতাইল গ্রামে ১৯৬৮ সালে জন্ম গ্রহণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৪৮ বছর। তিনি ১৩মত বিসিএস ক্যাডারে যোগদান করেন। তাঁর পিতার নাম মৃত মোঃ ছায়েদুল হক মোল্লা। তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, ১ ছেলে ও ২ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ওই দিন বিকেল সোয়া ৪টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের ফকিরপাড়া ঈদগাহ মাঠে জানাযা ও দোয়া শেষে মরহুমের মরদেহ মরহুমের গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জে নিয়ে সেখানে সমাহিত করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *