Sharing is caring!

ফেসবুকে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে

মুন্সিগঞ্জে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

নিউজ ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গুজব রটিয়ে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং এলাকা থেকে এক মাদ্রাসা শিক্ষককে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তার কাছ থেকে ২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে র‌্যাব-১১ এর সদস্যরা।

জানা গেছে, শনিবার (২৭ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টায় ফেসবুকে গুজব ছড়িয়ে ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চেষ্টাকালে র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকশ দল অভিযান চালিয়ে ছানাউল্লাহকে আটক করে। আটক ওই শিক্ষকের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর জেলার মতলব থানাধীন বাকরা এলাকায়। তিনি বিগত এক বছর যাবৎ খিদিরপাড়া মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

র‌্যাব-১১ এর মারফত জানা যায়, গত ২৬ জুলাই ‘মুফতি ছানাউল্লাহ চাঁদপুরী’ নামক ফেসবুক পেইজ থেকে সম্প্রতি ব্রাক্ষণবাড়িয়ার মেড্ডা এলাকার একটি মসজিদে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অমুসলিমরা জড়িত বলে মিথ্যা গুজব ছড়ান তিনি। এছাড়া ১৭ জুলাই জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি ও ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চেষ্টা করে ‘ভারতের একটি মাদ্রাসায় গরুর গোস্ত থাকায় হিন্দু সন্ত্রাসীরা আগুন লাগিয়ে দিয়েছে’ শীর্ষক একটি স্ট্যাটাসও দেন ছানাউল্লাহ।

র‌্যাব-১১ এর বরাতে আরো জানা যায়, ছানাউল্লাহ দীর্ঘদিন যাবৎ তার ব্যক্তিগত ফেসবুকে বিভিন্ন উসকানিমূলক বক্তব্য, স্ট্যাটাস প্রচার করে সাম্প্রদায়িকতা উসকে দেয়ার অপচেষ্টা করেন। আটক ছানাউল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *