Sharing is caring!

Naogaon Pic (2) 31.10.15নওগাঁ প্রতিনিধি \ নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামে শিবকালী মন্দিরের প্রতিমা ভেঙ্গে ফেলে সেখানকার কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি মন্দিরটির জায়গা দখলের চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। মন্দিরের জায়গা দখলে বাঁধা দিতে গিয়ে সেখানকার পাঁচজন হিন্দু ধর্মালম্বী নারীকে মারপিট করা হয়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। জানা যায়, শ্রীরামপুর শিবকালী মন্দির পরিচলনা কমিটির সাবেক সভাপতি চরণ চন্দ্র দেবনাথ ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক কালীদাস চন্দ্র ভূয়া রেজুলেশনের মাধ্যমে মন্দিরটির জায়গা জবর-দখলের চেষ্টা করছিলেন। পরে তাঁরা সেখানকার মুসলমান সম্প্রদায়ের ১১ জন ব্যক্তির কাছে বিভিন্ন অংকের টাকা নিয়ে জায়গাটি বিক্রি করেন। এ ঘটনায় শিবকালী মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি সুজন চন্দ্র মন্ডল চলতি বছরের গত ১৯ অক্টোবর নওগাঁ জেলা প্রশাসকের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। শিবকালী মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি সুজন চন্দ্র মন্ডল অভিযোগ করে বলেন, ওই এগারো জন ব্যক্তি বৃহস্পতিবার সকালে শিবকালী মন্দিরে এসে গাছপালা ও মাটি কেটে জায়গা দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এসময় হিন্দু সম্প্রদায়ের পুরুষ লোকজন সেখানে গিয়ে বাঁধা দিলে তাঁদের মারধর করতে থাকেন। এক পর্যায়ে তাঁরা সেখানে মন্দিরে থাকা বুড়ি মা-প্রতিমাটি ভেঙে ফেলেন। এ ঘটনাটি জানার পর হিন্দু নারীরা এগিয়ে এলে জায়গা দখলের চেষ্টাকারীরা তাঁদেরও মারপিট করেন। জায়গা দখলকারীদের মারপিটে মুক্তি রাণী, জোসনা রাণী, সুলেখা রাণী ও সরস্বতী রাণী আহত হয়েছেন। বদলগাছী থানা পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ বিষয়ে মন্দিরের জায়গা ক্রয়কারী ড: রায়হান বলেন, ঐ মন্দিরের সাবেক সভাপতি শ্রী চরন ও সম্পাদক কালীদাস এর কাছ থেকে একটি ঘরের জায়গা ২২ হাজার টাকায় কিনেছি। সেই জায়গা দখল দেওয়ার জন্য সাবেক সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক আমাদের ডেকে নিয়েছে বলে জানান। এ ব্যাপারে মন্দির পরিচলনা কমিটির সাবেক সভাপতি চরণ চন্দ্র দেবনাথ ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক কালীদাস চন্দ্রের সাথে কোন ভাবেই কথা বলা সম্ভব হয়নি। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা বদলগাছী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশিক ইকবাল বলেন, শ্রীরামপুর শিবকালী মন্দিরের জায়গা দখলের চেষ্টার খবর পেয়ে পরিদর্শণ শেষে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। এব্যপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *