Sharing is caring!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি \ বুধবার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন, এনডিসি, পিএসসি, পি ইঞ্জ, ৫৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন চাঁপাইনবাবগঞ্জের অধিনস্ত বাকের আলী বিওপি পরিদর্শন করেছেন। পরিদর্শন শেষে বেলা ১১টায় স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনসাধারণ এবং মিডিয়া ব্যক্তিবর্গের সাথে সীমান্ত অপরাধ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আব্দুল ওদুদ, পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট এরশাদ হোসেন খান। উক্ত মতবিনিময় সভায় মহাপরিচালক এর সাথে ছিলেন বিজিবি’র অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাহফুজুর রহমান, বিজিবিএম, বিজিবিএমএস, জি+, অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ.কে.এম সাইফুল ইসলাম, পিএসসি (রিজিয়ন কমান্ডার রংপুর), অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল হাসনাত মুহাম্মদ খায়রুল বাশার, পিবিজিএম, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কে.এম ফেরদাউসুল শাহাব, বিজিবিএম, পিবিজিএমএস (ব্যুরো চীফ), ঢাকা, উপ-মহাপরিচালক কর্ণেল মোঃ তানভীর আলম খান (পূর্ত শাখা), উপ-মহাপরিচালক কর্ণেল গাজী মুহাম্মদ সাজ্জাদ, এসপিপি, পিএসসি (সেক্টর কমান্ডার রাজশাহী), লেঃ কর্ণেল মোঃ রাশেদ আলী, পরিচালক, ৫৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এবং বিজিবি’র অন্যান্য পরিচালক বৃন্দ। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাবের রেজা আহমেদ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিদর্শক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, শুল্ক ও রাজ¯^ কর্মকর্তা মোঃ রইচ উদ্দিন, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়াকর্মী এবং সাধারণ জনগণসহ প্রায় ৭ শতাধিক  লোক মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন। মহাপরিচালক সীমান্তে বিট খাটালের মাধ্যমে বৈধভাবে গবাদিপশু বাংলাদেশে আনার ব্যাপারে মত প্রকাশ করেন। তবে গবাদিপশু আনায়নের ¶েত্রে যাতে কোন অনিয়ম এবং ব্যবসা-বানিজ্য নিয়ে বিট খাটাল মালিকদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ বা মারামারি না হয় সে বিষয়ে সতর্ক করেন। তিনি আরো বলেন, সীমান্তে গবাদিপশু আনায়নের জন্য অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের কারণে কোনভাবে যাতে হত্যার মতো কোন ঘটনা না ঘটে, সে দিকেও সকলকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। সীমান্ত দিয়ে যাতে কোন ভাবে মাদক, অস্ত্র এবং গোলাবারুদ না আসতে পারে সে ব্যাপারে স্থানীয় জনসাধারণকে আইন শৃংক্সখলা বাহিনীকে প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের অনুরোধ জানান এবং গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাধারণ জনগণ প্রয়োজনীয় সহায়তা করবেন বলে মহাপরিচালক মহোদয়কে আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকায় সীমান্ত ব্যাংক স্থাপনের মাধ্যমে বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক প্রকল্প চালু করে চোরাচালানী কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গকে উক্ত কার্যক্রম হতে ফিরিয়ে আনার প্রস্তাব দেন। উক্ত প্রস্তাবের প্রে¶িতে সংসদ সদস্য সীমান্ত ব্যাংক স্থাপনের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় স্থানসহ জমি বরাদ্দের আশ্বাস প্রদান করেন। মিডিয়া ব্যক্তিবর্গ এবং সাধারণ জনগনের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন মহাপরিচালক। এছাড়াও সীমান্ত অপরাধ প্রতিরোধকল্পে প্রয়োজনীয় সচেতনতা সৃষ্টির ল¶্যে উপস্থিত স্থানীয় জনসাধারণকে প্রেষনা প্রদান করেন। শেষে সংসদ সদস্যের সমাপনি বক্তব্যের মাধ্যমে ১২৩০ ঘটিকায় মতবিনিময় সভা শেষ হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *