Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিজ্ঞান মেলার উদ্ধোধন

বিজ্ঞান ছাড়া এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়

-আনওয়ার হোসেন

♦ স্টাফ রিপোর্টার

রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মো. আনওয়ার হোসেন বলেছেন, আমাদের দৈনন্দিন জীবনে বিজ্ঞানকে অস্বীকার করার কোন সুযোগ নেই। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে দেশের তরুনরা অনেক ভালো করছে এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় দেশের বাইরে থেকেও তারা সাফল্য নিয়ে আসছে। দেশে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয় হয়েছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে সরকারের দ্রুত গতিতে। তাই বিজ্ঞান ছাড়া আর এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে মঙ্গলবার দুপুরে ৪০তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি যাদুঘরের সহযোগিতায় নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ অডিটোরিয়ামে ৩ দিনব্যাপী মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, তথ্য প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ অনেক ভালো করছে। তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়েছে। আমরা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পাঠাতে সক্ষম হয়েছি, কাজ চলছে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মতো বড় বড় প্রকল্পের। “বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, অগ্রগতির মূল শক্তি” স্লোগানে অনুষ্ঠিত বিজ্ঞান মেলায় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তারুণ্যের শক্তি একটি বড় শক্তি। দেশ তরুণদের দিকেই তাকিয়ে আছে। তোমাদের হাতেই নির্ভর করছে দেশের ভবিষ্যৎ। বিজ্ঞানের চিন্তা ছাড়া কখনও মাদক, সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদে নিজেদের জড়াবে না এবং এগুলো থেকে দূরে থাকবে। এসব পরিবার, সমাজ ও দেশকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়। মো. আনওয়ার হোসেন বলেন, আমাদের দেশের তরুনরা অনেক মেধাবী। তারা আরো বেশি গবেষণার সুযোগ পেলে অনেক ভালো করতে পারবে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত তথ্য প্রযুক্তিতে ভালো করার কারনে তারা নিজেদের পণ্য ব্যবহার করতে পারে। এই তরুন প্রজন্মকে বাড়তি খেয়াল রাখতে অভিভাবকদের প্রতি আহব্বান জানান তিনি। জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মো. আলমগীর স্বপন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ড. আনোয়ারুল আবেদীন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এনডিসি খাদিজা বেগমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তাজকির-উজ-জামান। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন, আঞ্চলিক উদ্যানতত্ব গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. জমির উদ্দীন, গ্রীণ ভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রোকসানা আহমদ, নবাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মা. হাসিনুর রহমানসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকবৃন্দ। ৩ দিন ব্যাপী বিজ্ঞান মেলায় জেলার ৫টি উপজেলা হতে ৯টি করে ৪৫টি প্রতিষ্ঠান এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ১টি মিলে সর্বমোট ৪৬টি দল অংশগ্রহন করছে। দলগুলো ২৫টি স্টলে তাদের বিভিন্ন বিজ্ঞান ভিক্তিক আবিষ্কার ও উদ্ভাবনী প্রদর্শন করছে। মেলার দ্বিতীয় দিন বুধবার অলিম্পিয়াড, বির্তক ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। মেলার সমাপনী দিনে সকালে ২টি সেমিনার ও বিকেলে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ৪০তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলার।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *