Sharing is caring!

বিদ্যুতে স্বয়ংসম্পূর্ণ বাংলাদেশ: চাহিদার

দেড়গুণ উৎপাদন ক্ষমতা

একটা সময় ছিলো যখন লোডশেডিং এর পরিমাণ এতটাই ভয়াবহ ছিলো বাংলাদেশে বিদ্যুৎ নিয়ে মজার কিন্তু দুঃখজনক কৌতুক প্রচলিত ছিলো যে, বিদ্যুৎ মাঝে মাঝে যায় না, বিদ্যুৎ আসলে মাঝে  মাঝে আসে। বিদ্যুতের জন্য মানুষকে আন্দোলন করতে হয়েছে, ২০০৬ সালে বিদ্যুতের জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাটে মানুষকে প্রাণ দিতে হয়েছে। তবে এখন সবই অতীত। বাংলাদেশে এখন বিদ্যুতে স্বয়ংসম্পূর্ণ, শুধু স্বয়ংসম্পূর্ণই নয় দেশের মোট চাহিদার দেড়গুণ বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। বর্তমান সরকারের সফলতার উল্লেখযোগ্য একটি খাত হচ্ছে এই বিদ্যুৎ খাত।

গত কয়েক বছরে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যাপকভাবে বেড়েছে। ফলে এখন চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ কোন সমস্যা নয়। আবার বিদ্যুৎ সঞ্চালন কোম্পানি পিজিসিবি বলছে দেশে এখন ১৬ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হলেও তারা সঞ্চালন করতে পারবে। তাদের মতে একটি গ্রিড সাবস্টেশন থেকে আরেক সাবস্টেশনে বিদ্যুৎ সরবরাহে কোন সমস্যা নেই। দেশে এখন গ্রিড সংযুক্ত বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন ক্ষমতা ১৭ হাজার ৭০১ মেগাওয়াট। উৎপাদন ক্ষমতার বিপরীতে সর্বোচ্চ রেকর্ড উৎপাদন হয়েছে ১২ হাজার ৫৩৯ মেগাওয়াট। পিডিবি বলছে চাহিদা থাকলে আরও বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব।

গত ১০ বছরে সরকারের যে পরিসংখ্যান তাতে বলা হচ্ছে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সংখ্যা ২৭টি থেকে বেড়ে এখন ১৩০টি হয়েছে। এই সময় উৎপাদন ক্ষমতা বেড়েছে ১৬ হাজার ৪৭৭ মেগাওয়াট (ক্যাপটিভসহ)। সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদনের রেকর্ডেও অতিরিক্ত ৯ হাজার ২৭১ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ যোগ হয়েছে। সরকার বলছে ২০০৯ সালে সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদন ছিল তিন হাজার ২৬৮ মেগাওয়াট আর ২০১৯ সালে এসে যা বেড়ে হয়েছে ১২ হাজার ৫৩৯ মেগাওয়াট। সঞ্চালন লাইনের পরিমাণ আট হাজার কিলোমিটার থেকে ১১ হাজার ৪৯৩ মেগাওয়াট অর্থাৎ তিন হাজার ৪৯৩ মেগাওয়াট বেড়েছে। বিতরণ লাইন দুই লাখ ৬০ হাজার কিলোমিটার থেকে বেড়ে হয়েছে ৫ লাখ ১৪ হাজার কিলোমিটার। এই সময়ে গ্রিড সাবস্টেশন ক্ষমতা ১৫ হাজার ৮৭০ এমভিএ থেকে বেড়ে হয়েছে ৩৯ হাজার ৯৭৬ এমভিএ। বিদ্যুতের সুবিধাপ্রাপ্ত জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ২০০৯ সালে ছিল ৪৭ শতাংশ এখন যা ৯৩ শতাংশ। চলতি বছরের মধ্যে শতভাগ মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। যদিও সরকার এই লক্ষ্য বাস্তবায়নের জন্য ২০২১ সালকে নির্ধারণ করেছিল।

বর্তমানে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত গ্রামাঞ্চল থেকে শহরাঞ্চল। বিদ্যুতের আলোয় মানুষের জীবন, জীবিকা এবং ব্যবসায় এসেছে গতি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাস্তবায়িত হচ্ছে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ প্রকল্প।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *