Sharing is caring!

Photo-01ভোলাহাট সংবাদদাতা \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে আগুনে পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে একটি পরিবার। জানা গেছে, উপজেলার গোহালবাড়ী ইউনিয়নের বেতপুকুর তিলোকী গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে আতাহার হোসেন (৫০) প্রতিদিনের মত গরুর গোহালঘরে মশা তাড়ানোর জন্য শুক্রবার ঘুঠা জ্বালিয়ে আগুন দিলে হঠাৎ রাত ১১টার দিকে গোহালঘরসহ তার বসতবাড়ীতে আগুন জ্বলে উঠে। পার্শ্ববর্তীরা খবর পেয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও আতাহারের স্ত্রী ফরিদা (৪০) ও মেয়ে ফাতেমা (২৫) মারাত্বকভাবে আগুনে ঝলসে যায়। এদের মধ্যে আতাহার হোসেন ও তার স্ত্রী ফরিদা বেগম দু’জনেরই মুখমন্ডল আগুনে মারাত্বক ক্ষতি হয়। বর্তমানে আতাহার, তার স্ত্রী ও মেয়ে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ দিকে আতাহারের পরিবারের দু’জনসহ তার বসবাসরত ৪টি ঘর ও ঘরের সম্পূর্ণ মালামাল আগুনে পুরে ভস্মিভূত হয়। এ ছাড়াও ৩টি ছাগল ও ৩টি গরু আগুনে পুড়ে মারা যায়। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৪ লাখ টাকা বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে। সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল হায়াত মোঃ রফিক দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে আহত রোগীদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। তিনি তাৎক্ষনিকভাবে আহতদের চিকিৎসার জন্য ১০ হাজার টাকা প্রদান করেন। পরবর্তীতে বাড়ী র্নিমাণের জন্য আর্থীক সহায়তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করবেন বলে তিনি জানান। এ দিকে স্থানীয় গোহালবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন পুড়ে যাওয়া পরিবারের সাথে সার্বক্ষণিক সহায়তা করেছেন।  আগুনে পুড়ে যাওয়া পরিবারের ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি ইয়াসিন আলী শাহ্ আগুনে পুড়ে যাওয়া পরিবারের গৃহ পূণঃনির্মাণের ও আহত রোগীদের চিকিৎসার জন্য সার্বিক সহায়তা করবেন বলে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *