Sharing is caring!


ভোলাহাট প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাটের বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের প্রায় ৪৫ বিঘা জমি ভারত দখলে রয়েছে। সরকারের কাছে এসব বেদখল হওয়া জমি নিয়মানুযায়ী উদ্ধারের দাবী করেছেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসি অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার চরধরমপুর গ্রামের মহানন্দা নদীর তীরে মেইন পিলার ২০১ এর সাব পিলার ১১০ এর পাশে প্রায় ৪৫ বিঘা জমি রয়েছে বাংলাদেশের। কিন্তু এ জমি ভারত নিজ দখলে নিয়ে পিলার স্থাপন করেছে। তারা বলেন, সিএস রেকোর্ডমূলে মালদহ জিলার  ভোলাহাট থানার গোপিনাথপুর মৌজার রেঃসাঃ নং-৩২ তৌজি নং-৯-৫ খতিয়ন নং-১৯০ দাগ নং-১৩৮৪ জমির রকম-বালু, পরিমাণ ১৫ একর দখলদার ভারত সম্রাট নামে রয়েছে। পরবর্তী এসএ রেকোর্ডমূলে রাজশাহী জিলার ভোলাহাট থানার গোপিনাথপুর মৌজার রেঃসাঃ নং-৩২ তৌজি নং-৩০৮৫ খতিয়ন নং- ১০০৫ এবং ১৩৮৪ সাবেক দাগ থেকে পর্যায়ক্রমে ৪৮০৩, ৪৮০৮, ৪৮১৩সহ আরো দাগ তৈরী হয়ে ১৫ একর জমি ৯৯০ পূর্ব পাকিস্তান প্রদেশ প¶ে কলেক্টর মালিকানা পাই। এসব জমি উপজেলার চরধরমপুর গ্রামের দিদার মন্ডলের ছেলে মোকসেদ আলী, সুলতান শেখের স্ত্রী কুলসম বেগম, সেকান্দার আলীর স্ত্রী মসিরন খাতুন, নবেদ আলী বিশ্বাসের ছেলে জসিমদ্দিন, তৈমুর রহমান ¯^ত্বের দখলদার হিসেবে রয়েছে। এসব জমি উদ্ধারের ব্যাপারে স্থানীয়রা বিভিন্ন সময় সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিতভাবে জানিয়েও কোন ফল হয়নি বলে অভিযোগ করেন। এব্যাপারে জেকে পোল্লাডাংগা কোম্পানী(দায়ীত্বরত) কমান্ডার বারেকের সাথে যোগাযোগ করা হলে, তাদের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি জানার অনুরোধ জানান। বাংলাদেশের জমি ভারতে দখলে থাকায় উদ্ধারের কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে কি না চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা বিশ্বাসের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভোলাহাটে উপজেলা নির্বাহী অফিসার না থাকায় এ মূর্হূতে ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব নয়। তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার যোগদান করলে কাগজপত্র দেখে তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে অবশ্যই বাংলাদেশের জমি উদ্ধারের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *