Sharing is caring!

মংলা-খুলনা রেল চালু হবে ২০২২ সালে মধ্যেই:রেলমন্ত্রী

যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং সমুদ্র বন্দর মংলার সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০২২ সালের মধ্যেই মংলা-খুলনা রেল লাইন চালু হবে বলে জানান রেল মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। খুলনা থেকে মংলা পর্যন্ত রেল লাইনটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (৪জুলাই) দুপুরে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের রেষ্ট হাউস পারিজাতে রেল বিভাগ ও মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে বৈঠকে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, খুলনা-মংলা রেল পথে যাত্রী পরিবহণসহ মংলা বন্দরের মালামাল পরিবহণ করা হবে। এছাড়া উত্তর অঞ্চলের পঞ্চগড় থেকে বাংলাবন্ধ হয়ে ভারতের শিলিগুড়ির সাথে এ রেল যোগাযোগ সরাসরি সংযুক্ত হবে। এর ফলে ভারত, নেপাল ও ভুটানের সাথে রেল যোগাযোগ বৃদ্ধি পাবে। যার ফলে মংলা বন্দর ব্যবহারকারী বৃদ্ধি পাবে।

এ সময় খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো: মামুনুর রশীদ, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আফসানা ইয়াসমিন, রেল প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী আ: রহিম, মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রাহাত মান্নানসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। পরে মন্ত্রী মংলা-খুলনা রেল লাইন ও খুলনার রুপসা নদীর উপর নির্মিতব্য রেল সেতুর কাজ পরিদর্শন করেন।

রেলপথ সচিব মোফাজ্জেল হোসেন জানান, ‘‘খুলনা-মংলা রেলপথ নির্মাণ কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত এই প্রকল্প বাস্তবায়নে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় প্রশাসন আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই নির্মাণ কাজ শেষ হবে।’

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ মনে করেন, বিশ্ব ঐতিহ্যে সুন্দরবন ও ষাটগম্বুজ,  মংলা সমুদ্র বন্দর, একটি বিমান বন্দর, উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা, রেল যোগাযোগ, বিদ্যুৎ কেন্দ্র এ জেলায় রয়েছে। যার ফলে অর্থনৈতিক দিক দিয়ে খুলনা-মংলা রেল যোগাযোগ প্রকল্প অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এটি বাস্তবায়িত হলে বাগেরহাট দেশি-বিদেশী বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের কেন্দ্রে পরিণত হবে। মানুষের জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধি পাবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *