Sharing is caring!

মাছ ধরতে গিয়ে তীর-ধনুক দিয়ে আক্রমন
চাঁপাইনবাবগঞ্জে আদিবাসীদের হামলায় নারীসহ ১৫ জন আহত ॥ এক নারীর অবস্থা আশংকাজনক

♦ স্টাফ রিপোর্টার

৫ বছরের জন্য লিজ নিয়ে নিজেদের চাষ করা মাছ মারতে গিয়ে তীর-ধনুক দিয়ে আদীবাসীদের অবৈধ দখলের উদ্দেশ্যে চালানো হামলায় স্থানীয় নারীসহ প্রায় ১৫ জন আহত হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার আমনুরার টংপাড়ায় লীজ নেয়া পুকুরে মাছ ধরতে গিয়ে টংপাড়ার পুকুরপাড়ে সোমবার সকালে এঘটনা ঘটে। আদিবাসীদের হামলায় মারত্মকভাবে আহত আব্দুল খালেকের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৩০) নামে এক নারীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে তাঁর অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে। আহতদের চাঁপাইনবাবগঞ্জের আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। স্থানীয় সুত্র জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম মৌজার ওই পুকুরের মালিক চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. তরিকুল ইসলাম (টি ইসলাম)। তার কাছ থেকে লীজ নিয়ে মাছ চাষ করছেন স্থানীয়রা। সোমবার সকালে নিজেদের চাষ করা মাছ ধরতে যায় স্থানীয় লিজ গ্রহিতারা। এসময় অতর্কিতভাবে তীর-ধনুক নিয়ে হামলা চালায় আদিবাসীরা। ঘটনায় সময় নারীরা এগিয়ে আসলে তাদেরও তীর এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। উভয় পক্ষর মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এতে দু-পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। পরে পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। লীজ গ্রহীতা আব্দুল খালেক জানান, চাঁপইনবাবগঞ্জের ব্যবসায়ী টি ইসলাম এ পুকুরটির মালিক। তারা টি ইসলামের কাছ থেকে ৫ বছরের জন্য এ পুকুর লীজ নিয়েছেন। সোমবার সকালে লীজ নেয়া পুকুরে মাছ ধরতে গেলে আদিবাসীরা অস্ত্র সজ্জিত হয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। এতে তার স্ত্রীসহ ৮ জন আহত হয়েছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে আহত আদিবাসীরা জানান, প্রতিপক্ষরা তাদের পুকুরে মাছ ধরছিল। বাধা দিতে গেলে তাদের পিটিয়ে আহত করে। পুকুর টি ইসলামের, কিন্তু আপনারা দাবী করছেন, এমন প্রশ্নের কোন উত্তর না দিয়ে এড়িয়ে যান তারা। পুকুরের মালিক তরিকুল ইসলাম (টি. ইসলাম) মঙ্গলবার বিকেলে জানান, দীর্ঘদিন আগে ক্রয় করা পুকুর ও জমি নিয়ে স্থানীয় আদিবাসীরা বিভিন্নভাবে হয়রানী ও ক্ষতিগ্রস্থ করেই চলেছে। তাদের কোন কাগজপত্র বা বৈধ কোন অধিকার না থাকলেও জোরপূর্বক আমার জমি-পুকুর সেখানকার আদিবাসীরা ভোগ-দখল করতে চায়। আর এসব আদীবাসীদের ইন্ধন যোগাচ্ছে একটি কু-চক্রী মহল। বাধ্য হয়েই আদিবাসীদের অত্যাচার থেকে বাঁচতে আমি ওই পুকুর স্থানীয় মসজিদ ও গ্রামের উন্নয়ন কল্পে বাৎসরিক ৫০ হাজার টাকা হিসেবে নিয়ে স্থানীয়দের লিজ দিয়েছি। যাঁরা লিজ নিয়েছে, তাঁরাই মাছ চাষ করছে এবং মাছ মারতে গিয়ে আদিবাসীদের হামলা শিকার হয়েছে, বিষয়টি শুনেছি। তিনি আরও বলেন মারাত্মক আহত নারী মনোয়ারা বেগম এর মাথায় তীর লেগেছে, তাঁর মাথায় মারাত্মক আঘাত লেগেছে। এখনও তাঁর অবস্থা আশংকাজনক। কথাও বলতে পারছেন না। তাঁর চিকিৎসা চলছে। মঙ্গলবার বিকেলে এবিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোজাফফর হোসেন জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার আমনুরার টংপাড়ায় পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে পুকুরপাড়ে স্থানীয় আদিবাসী ও মুসলমানদের মধ্যে সংঘর্ষে কয়েকজন আহত হয়েছেন, বিষয়টি জেনেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোন পক্ষেরই অভিযোগ পাই নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *