Sharing is caring!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি \ রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার জাহানাবাদ ইউনিয়নে পাকুড়িয়া মহাবিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এক ব্যক্তির ১০ শতক জমি কৌশলে দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয়, জমিটি দখল করতে মালিক ও তার দুই ছেলের নামে আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকে কলেজ কর্তৃপক্ষ প্রশাসন ও মোহনপুর থানার ওসি এসএম মাসুদকে ব্যবহার করে অবৈধভাবে জমি দখলের পাঁয়তারা করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ তুলে ধরা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জমির মালিক আবুল হোসেন সরকারের ছেলে ওই কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সরকার। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, জাহানাবাদ ইউনিয়নের পাকুড়িয়া মহাবিদ্যালয়ের দক্ষিণপাশের্^ ১০ শতক জমি ভোগদখল করে আসছেন জমির মালিক আবুল হোসেন সরকার। এতে জমির মালিকের নামে সাইনবোর্ড স্থাপন করা হয়েছিল। কিন্তু গত ১১ এপ্রিল পাকুড়িয়া কলেজের অধ্যক্ষ ও ইউনিয়ন জিয়া পরিষদের সাবেক সভাপতি আসলাম আলী মীর, জাহানাবাদ ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি আকবর আলী প্রাং, ইউনিয়ন বিএনপির সদস্য আইয়ুব আলী ও আলতাবের নেতৃত্বে কয়েজন ব্যক্তি জমির সাইনবোর্ড ও জমির সীমানা পিলার তুলে ফেলেন। গত ১৭ এপ্রিল আমার জমিতে টিনের বেড়া ও ছাউনি দ্বারা বাড়ী নির্মাণ করতে গেলে কলেজের অধ্যক্ষ আসলাম আলী মীর, আকবর আলী প্রাং, আইয়ুব আলী ও আলতাব সঙ্গীয় লোকজনসহ কিছু সন্ত্রাসী লোক নিয়ে আমার পিতা, ছোট ভাই এবং আমাকেসহ কাজের লোকের উপর হামলা চালায় ও প্রাণ নাশের হুমকিসহ যেকোন মূল্যে জমি দখল করবেন বলে হুমকি দিয়ে চলে যায়। এদিকে, মহাবিদ্যালয়ের নিজ¯^ কোন রাস্তা না থাকলেও কলেজ কর্তৃপক্ষ নীতিমালা বর্হিভূতভাবে সেই জমির পেছনে চারতলা ভবন নির্মাণ করছে। শুধু তাই নয় ভবন নির্মাণের মাধ্যমে পেছনের ১০ শতক জমি দখলের চেষ্টাও করছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। ভুক্তভোগী পরিবারটি এ বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর রাজশাহী, রাজশাহী পুলিশ সুপার, র‌্যাব-৫, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অভিযোগ দেওয়া হলেও তাদের পক্ষ থেকে অদ্যাবধি কোন ফল পাননি জমির মালিক। সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী পরিবারটি বিষয়টি নিস্পত্তি ও নিজেদের নিরাপত্তা চেয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও আইন শৃক্সখলা বাহিনীর সহযোগীতা কামনা করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *