Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর দাখিল মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও ৬ষষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের বরণ অনুষ্ঠান হয়েছে। বুধবার সকালে মাদ্রাসা চত্বরে বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারমান ও বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর কলেজের অধ্যক্ষ আলহাজ্ব এজাবুল হক বুলি। সভাপতিত্ব করেন মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ আহসান আলী মাস্টার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মোহাম্মদপুর দাখিল মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট মোঃ মনিরুল ইসলাম। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুরু হয়। বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বীরমুক্তিযোদ্ধা আ.ক.ম আলহাজ্ব মোঃ জহুরুল ইসলাম, আলহাজ্ব মোঃ আফতাব উদ্দিন বিশ্বাস, মাদ্রাসার সাবেক সভাপতি ও অব. স্কুল শিক্ষক আলহাজ্ব মোঃ ইসমাইল হক মাস্টার, অব. পোষ্ট মাস্টার আলহাজ্ব মোঃ আসমোতুল্লাহ, সাপ্তাহিক সোনামসজিদ পত্রিকার সম্পাদক ও বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মোহাঃ জোনাব আলী, মহারাজপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সমাজ সেবক মোঃ মাসুদ রানা (দুরুল), স্থানীয় সমাজ সেবক আলহাজ্ব মোঃ শরিফুল ইসলাম (বকুল), মোহাম্মদপুর হিফজুল কুরআন একাডেমীর প্রধান হাফেজ হাফেজ মোঃ জসিম উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসার হিতাকাক্সখী আলহাজ্ব মোঃ শফিকুল ইসলাম, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ মাদ্রাসার শিক্ষকগণ ও বিভিন্ন শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা। অনুষ্ঠানে শিক্ষাথীদের উদ্দেশ্যে উপদেশমূলক বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসার প্রাক্ত ছাত্র মাওলানা মোঃ রাসেল। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুল আলিম। বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠানে হামদ পরিবেশন করেন মাদ্রাসার ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী ও ২০১৭ সালে জেলায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে মাদ্রাসা বিভাগে শ্রেষ্ঠ ছাত্রী নির্বাচিত মুর্শেদা খাতুনসহ অন্যরা। এই মাদ্রাসা থেকে শ্রেষ্ঠ ছাত্র নির্বাচিত হয় মোঃ আব্দুল্লাহ। উল্লেখ্য, মহারাজপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামে প্রায় ৪৬ বছর আগে মাত্র একটি খড়ের চালা নির্মাণ করে স্থানীয় শিক্ষানুরাগীগণ এলাকার সন্তানদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়ার কাজ শুরু করে। দীর্ঘদিনে এবং বর্তমান সরকারের আমলে মাদ্রাসার ভবনসহ অনেক উন্নয়ন হয়েছে। বর্তমানে মাদ্রাসায় হিফজুল কুরআন একাডেমী চালু হয়েছে। এই মাদ্রাসার অনেক শিক্ষার্থী বর্তমানে অনেক গুরুত্বপদে দায়িত্ব পালন করছেন। যদিও মাদ্রাসার আরও বেশ কিছু সমস্যা রয়েছে। এসব সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য মাদ্রাসা প্রধান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের নিকট আহবান জানান। এবছর এই মোহাম্মদপুর দাখিল মাদ্রাসা থেকে মোট ৪০জন শিক্ষার্থী দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে এবং ৬৮জন শিক্ষার্থী ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি স্থানীয়দের সহায়তায় মাদ্রাসার আরও উন্নয়ন হোক এটায় শিক্ষানুরাগীদের প্রত্যাশা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *