Sharing is caring!

gomastapur pic18-01-2016গোমস্তাপুর প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জে গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুরস্থ আলহেরা ক্লিনিকে অপারেশন রোগীদের সাথে শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগীর পরিবাররা সোমবার সকালে ওই ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে প্রতিবাদ করতে গেলে উল্টো তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয় এবং ধাক্কাধাক্কি করে ক্লিনিক থেকে বের করে দেয় রোগীর স্বজনদের। ভুক্তভোগী ফেন্সির স্বামী শরিফুল ইসলাম জানান, গত ১৫ জানুয়ারী তার স্ত্রী ফেন্সি (২৮)কে আলহেরা ক্লিনিকে সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়। কিন্তু অপারেশন থিয়েটারে তার স্ত্রীকে জোরপূর্বক ভাবে শ্লীলতাহানি করে অপারেশন করে। এ সময় তার স্ত্রী বাধা প্রধান করার চেষ্টা করলে জোরপূর্বক ডাক্তার, ওয়ার্ড বয়, নার্স সকলে মিলে এ অপারেশন করে। এর প্রতিবাদ করতে গেলে শওকত ও তার বাহিনীরা আমাদের প্রতি চড়াও হয় এবং মারধর করে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী অপারেশনের রোগী ফেন্সি জানান, ওই দিন অপারেশন থিয়েটারে অপারেশন করার জন্য তাকে প্রস্তুত করা হয়। পরে অপারেশনের বেডে গিয়ে প্রথমে আমার শরীরের ব্লাউজ খুলার চেষ্টা করে ওয়ার্ড বয় টুটুল। আমি বাধা দিলে জোরপূর্বক সমস্ত পরিধানের বস্ত্র খুলে ফেলে এবং অপারেশন করে। এ জঘন্যতম বিষয়টি পরিবারকে অবহিত করলে ক্লিনিকের মালিক ধামাচাপা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের চাপ দিতে থাকে এবং ওয়ার্ডে এসে মানসিক ভাবে নির্যাতন করেছে। এছাড়া ওয়ার্ডের অন্যান্য ভুক্তভোগী অপারেশন রোগীরা জানান, তাদেরও ওই দিন অপারেশন থিয়েটারে একই অবস্থা করে। ওই সময় বাধা প্রধান করার সত্তেও একই ধরনের জঘন্যতম কাজ করে অপারেশন থিয়েটারে। এ ব্যাপারে আলহেরা ক্লিনিকের মালিক শওকত আলী জানান, এ অভিযোগ গুলো সম্পুর্ণ ভিত্তিহীন। এটা একটা ভুলবুঝাবুঝির সৃষ্টি। ওই দিন অপারেশন থিয়েটারে এ ধরনের কোন ঘটনা হয়নি। উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে এ ক্লিনিকে কর্তব্যরত ডাক্তাররা রোগীদের সাথে একাধিকবার শীলনতাহানি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *