Sharing is caring!

রাজশাহীতে বরেন্দ্র যুব

সম্মেলন ও সম্মাননা অনুষ্ঠান

♦ স্টাফ রিপোর্টার

“তারুণ্যের শক্তি বৈষম্য থেকে মুক্তি” এই শ্লোগানে রাজশাহী বরেন্দ্র অঞ্চলের বৃহৎ যুব তরুণ ঐক্য বরেন্দ্র অঞ্চল যুব সংগঠন ফোরাম এবং উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক’র আয়োজনে বরেন্দ্র যুব সম্মেলন ও সম্মাননা অনুষ্ঠান হয়েছে। সম্মেলনে বরেন্দ্র অঞ্চলের ৪৬টি তরুণ সংগঠনের তিন শতাধিক তরুণ প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। ৩ মার্চ সকালে রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে জাতীয় সংগীতের সংঙ্গে পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়। পরে শহীদদের সম্রণে ১ মিনিট নিরবতা পালন শেষে শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপন করা হয়। এরপর একাডেমী প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করে শহীদ এ,এইচ.এম কামরুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়িাখানার মূল ঘুরে শিল্পকলা একাডেমিতে শেষ হয়। বরেন্দ্র যুব সম্মেলনের প্রথম পর্বের আলোচনা এবং তরুণ সংগঠনসমূহের বিগত বছরের কার্যক্রম, বর্তমান সমস্যা এবং সম্ভাবনার দিকগুলো নিয় উপস্থাপন শুরু হয়। তরুণদের উদ্দেশ্যে পরামর্শমূলক বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. আব্দুল মান্নান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অভিজিৎ রায়, রাজশাহী ব্যবসায়ী সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও সফল উদ্যেক্তা সেকেন্দার আলী, পরিবেশপদক প্রাপ্ত আদর্শ কৃষক ইউসুফ আলী মোল্লা, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ড. আইনুল হক, রাজশাহী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আসলাম-উদ দৌলা, মুক্তি যুদ্ধের গবেষক ওয়ালিউর রহমান বাবু। এর আগে বরেন্দ্র অঞ্চলের আহবায়ক মোসা. জরিনা খাতুন শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। বরেন্দ্র যুব সম্মেলন এবং সম্মাননা অনুষ্ঠানের মূল ধারণাপত্র পাঠ করেন উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিকের বরেন্দ্র অঞ্চল সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম। সম্মাননা এবং ক্রেস্ট প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে গম্ভীরা প্রদর্শন করেন বারনই লোকসাহিত্য পরিষদের গম্ভীরা দল।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *