Sharing is caring!

DSC07100প্রেস বিজ্ঞপ্তি \ র‌্যাব-৫ এর রাজশাহীর সিপিএসসি, রেলওয়ে কলোনী ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল সোমবার বিকেলে অভিযান চালিয়ে রাজশাহী মহানগরীর পুঠিয়া থানাধীন বানেশ্বর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অপহরণকারী চক্রের সদস্য (১) মোছাঃ কেয়া (১৮), পিতা-মোঃ দুলু মহলদার, সাং-মিয়াপুর, থানা-চারঘাট, জেলা-রাজশাহী এবং (২) মোঃ আমিনুল ইসলাম (২৮), পিতা-মোঃ হারেছ আলী, সাং-পশ্চিম বুধপাড়া, থানা-মতিহার, জেলা-রাজশাহীদ্বয়’কে গ্রেফতার করা হয় এবং তাদের জিম্মা থেকে ১৯ মাস বয়সের অপহৃত শিশু সাকিব’কে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার বিবরণে র‌্যাব সুত্র জানায়, অপহৃত ভিকটিম সাকিবের বাবা ঝুট ব্যবসায়ী মোঃ মজিবুর রহমান গত ১ মাস পূর্বে গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক এলাকায় ভাড়া বাসায় স¦-পরিবারে বসবাস শুরু করে। গত ৩ মাস আগে হতে অপহরণকারী চক্রের মূল হোতা মোঃ সাইফুল ইসলাম বুলবুল (২৪), পিতা-মোঃ হারেছ আলী, সাং-পশ্চিম বুধপাড়া, থানা-মতিহার, জেলা-রাজশাহী এবং তার কথিত স্ত্রী মোছাঃ কেয়া (১৮), পিতা-মোঃ দুলু মহলদার, সাং-মিয়াপুর, থানা-চারঘাট, জেলা-রাজশাহী ঐ একই এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে ও অপহরণের ষড়যন্ত্র করতে থাকে। ভিকটিম এবং অপহরণকারী চক্রের বাসা পাশাপাশি হওয়ায় অপহরণকারীরা শিশু সাকিবকে বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখাতো। এরই ধারাবাহিকতায় গত ৭ আগষ্ট আনুমানিক ১৩০০ ঘটিকার সময় অপহরণকারী বুলবুল ভিকটিমের মাকে বলে, ভাবী সাকিবকে আমার কাছে দেন আমি ছাদ থেকে ঘুরিয়ে নিয়ে আসি। একপর্যায়ে সাকিবের মা বুলবুলের কাছে সাকিবকে রেখে ঘরে প্রবেশ করে এবং ঘর থেকে বাহির হয়ে তাদেরকে দেখতে না পেয়ে আশেপাশে খোজাখুজি করতে থাকে। পরবর্তীতে আনুমানিক ১৬০০ ঘটিকার সময় বুলবুল ফোন করে জানায় যে, চিন্তা করবেননা সাকিব আমাদের কাছে আছে এবং ভাল আছে। পরবর্তীতে অপহরণকারী সোমবার ভিকটিমের বাবার কাছে ফোন করে ১০,০০,০০০/- (দশ ল¶) টাকা মুক্তিপন দাবী করে এবং শিশুটিকে হত্যার হুমকি দেয়। এরপরপরই ভিকটিমের বাবা কালিয়াকৈর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে এবং র‌্যাব-১, উত্তরাতে লিখিত অভিযোগ করে। অভিযোগ প্রাপ্তির পর ভিকটিমকে জীবিত উদ্ধার ও আসামীদেরকে গ্রেফতারের ল¶্যে র‌্যাব ব্যাপক গোয়েন্দা তৎপরতা চালাতে থাকে। জানা যায় যে, অপহরণকারী দল রাজশাহী জেলার পুঠিয়া থানাধীন বানেশ্বর এলাকায় অবস্থান করছে। তাদের অবস্থান সুনিশ্চিত হয়ে সোমবার আনুমানিক ১৪০০ ঘটিকায় র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিএসসি, রেলওয়ে কলোনী ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল লেঃ কর্ণেল মোঃ মাহাবুব আলম এর নেতৃত্বে সুকৌশলে অভিযান পরিচালনা করে (১) মোছাঃ কেয়া (১৮), এবং মোঃ আমিনুল ইসলাম (২৮)’কে গ্রেফতার করা হয় এবং তাদের জিম্মা থেকে ১৯ মাস বয়সের অপহৃত শিশু সাকিব’কে জীবিত উদ্ধার করতে স¶ম হয়। উপরোক্ত ঘটনার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *