Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ ১৯৭১ সালে পাক হানাদার বাহিনীর কাছ থেকে যারা বাংলাদেশকে উজ্জীবিত করেছেন এবং লাল-সবুজের পতাকা ছিনিয়ে এনে দেশকে পাক বাহিনী মুক্ত করেছেন তারাই দেশের সূর্য সন্তান। সেই সূর্য সন্তানদের ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে পেয়েছি স্বাধীনতা। ৪৬ বছর থেকেন বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতে দেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলাস প্রশাসন ও বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনগুলো পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য নিয়মানুযায়ী শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলির পুষ্পন্তবক অর্পণ করতে না পারায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ক্ষোভ সঞ্চল হয়েছে। একপর্যায়ে শিবগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড সংসদ্যে সাবেক কমান্ডার বজলার রশিদ সোনু পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন না বলে সকল মুক্তিযোদ্ধদের চলে আসতে বলেন। এব্যাপারে সাবেক কমান্ডার বজলার রশিদ সোনু জানান, সরকারের নীতিমালা অনুযায়ী ও সরকার ঘোষিত আমাদের শ্রেষ্ঠ সন্তান উপাধি দিলেও শিবগঞ্জ উপজেলায় আমলা তান্ত্রীকের কারণে সেই মূল্যায়ন হচ্ছে না। মহান বিজয় বিদসে সরকারী নিয়মানুযায়ী যদি কোন মন্ত্রী বা এমপি থাকেন তাহলে তিনি প্রধান অতিথি হয়ে পুষ্পন্তবক অর্পণ করবেন। এরপর উপজেলা প্রশাসন, তারপর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড । কিন্তু মাইকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডকে আমলা তান্ত্রীক নেতাকর্মীরা পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে না দিয়ে নিজের দিয়েছে এবং উপজেলা প্রশাসন নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছেন। এই ধরণের বিশৃক্সখলা দেখে আমি প্রতিবাদ করলে পরে আমাদের পুষ্পস্তবক অর্পণ করার সুযোগ করে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। তাদের এই ধরণের বিশৃক্সখলা আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের একপ্রকার হেয়প্রতিপন্ন করেছে। আমরা চাই আগামীতে যেনো এই ধরণে বিশৃক্সখলা বা আমলা তান্ত্রীক নেতাকর্মীরা যেনো না থাকেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *