Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে রবীন্দ্র-নজরুল জন্মজয়ন্তী ও সাংস্কৃতিক উৎসব

শারীরিক ও মানসিক বিকাশে লেখাপড়ার পাশাপাশি

সংস্কৃতি চর্চাও জরুরী: জেলা প্রশাসক

 

♦ স্টাফ রিপোর্টার

জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, শুধুমাত্র পড়াশোনার মধ্যেই নিজেদের সীমাবদ্ধ না রেখে, তার পাশাপাশি গুরুত্বের সাথে সংস্কৃতি চর্চাও অত্যন্ত জরুরী। লেখাপড়ার পাশাপাশি নিয়মিত খেলাধূলা ও বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে হবে। এতে শারীরিক ও মানসিক বিকাশ আরো বেশি প্রস্ফূটিত হয়। “সব শিশুকে সঙ্গে নিয়ে বদলে দিব এই পৃথিবী” ¯েøাগানে চাঁপাইনবাবগঞ্জে রবীন্দ্র-নজরুল জন্মজয়ন্তী ও সাংস্কৃতিক উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। রবীন্দ্র-নজরুল জন্মজয়ন্তী ও সাংস্কৃতিক উৎসব উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ও জেলা শিশু একাডেমির আয়োজনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি বলেন, যে কোন প্রতিযোগিতায় শুধুমাত্র বিজয়ী হওয়ার জন্যই অংশগ্রহণ করতে হবে, এমনটা নয়। এমন চিন্তা-ভাবনা থেকে সকলকেই দূরে থাকতে হবে। এসব প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করাটাও অনেক সাহসের একটি কাজ বলে উল্লেখ করেন তিনি। তিনি আরো বলেন, পুরস্কারের চাইতে অংশগ্রহনই এখানে মুখ্য বিষয়। তাই সকলকে নিজের সুপ্ত প্রতিভা বিকশিত করতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে হবে। জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মো. শফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান পিপিএম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা কালচারাল অফিসার ফারুকুর রহমান ফয়সাল, অধ্যক্ষ অজিত কুমারসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা ও অভিভাবকগণ। আলোচনা সভা শেষে শিক্ষার্থীদের ৩টি বিভাগে চিত্রাংকন, রবীন্দ্র-নজরুল সংগীত, কবিতা আবৃতি ও নাট্য প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য, সকল প্রতিযোগিতায় শিশু থেকে ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ক বিভাগে, ৫ম-৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা খ বিভাগে এবং ৮ম-১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা গ বিভাগে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় ৩০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। কবিতা আবৃতি প্রতিযোগিতায় ক বিভাগে কাজী নজরুল ইসলামের লিচু চোর, খ বিভাগে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জুতা আবিস্কার এবং গ বিভাগে দুই বিঘা জমি কবিতা আবৃতি করে শিক্ষার্থীরা। শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করে সরকারি শিশু পরিবার, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ, শিবগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও স্বরূপনগর শহীদ মোহর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *