Sharing is caring!

20160817_164300শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ শিবগঞ্জের মনাকষা ভূমি অফিসে নেশাগ্রস্থ মাতাল অবস্থায় সহকারী তহশিলদার নাদিমূল হক নয়ন নিজেই নিজের অফিসে আগুন লাগিয়ে অফিসের মালামাল পুড়িয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে সংশ্লিষ্ট বিভাগ এ রহস্যজনক আগুনের কারন অনুসন্ধানে একটি তদন্ত দল গঠনের মাধ্যমে এর হোতাকে খুঁজে বের করা হবে বলে জানিয়েছে। আগুন দেখে স্থানীয়রা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে এবং তাৎক্ষনিকভাবে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় প্রশাসনকে খবর দেয়। খবর পেয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজ¯^) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং অচেতন অবস্থায় তহশিলদার নাদিমূল হককে উদ্ধার কর চিকিৎসার জন্য শিবগঞ্জ ¯^াস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করেন। এ সময় নেশার বিভিন্ন উপকরনাদি জব্দ করা হয়েছে। প্রত্য¶দর্শী ও এলাকাবাসী জানান, বুধবার বিকালে উপজেলার মনাকষা বাজারে অবস্থিত ভূমি অফিসে হঠাৎ আগুন দেখে লোকজন ছুটে আসে। কিন্তু কার্যালয়টি ভিতর থেকে তালাবন্ধ থাকায় সরাসরি প্রবেশ করতে না পেরে এলাকাবাসী তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে আগুন নেভায়। প্রত্য¶দর্শী রানা, দুরুল, জিয়াসহ অনেকে জানান, বিকেল আড়াইটার দিকে হৈচৈ শুনে বাজারের ভূমি অফিসে গিয়ে দেখি অফিসের ভিতরের একটি ক¶ে সহকারী তহশিলদার নাদিমূল হক নয়ন   অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। এসময় টেবিলের উপর গ্ল¬াস ভর্তি মদ, ইয়াবা ট্যাবলেট, রাংপাতা, গ্যাসলাইট, দড়িসহ বিভিন্ন নেশার উপকরন লক্ষ্য করা গেছে। অফিসের কিছু মালামাল পুড়ে গেছে। তারা আরো জানান, অফিসের ভিতরে দড়ি সাজিয়ে আগুন লাগানো হয়েছে। এসময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা শাহাদাত হোসেন খুররম দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপ¶কে অবহিত করেন। এব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা শাহাদাৎ হোসেন জানান, বিভাগীয় উর্দ্ধতন কর্তৃপ¶ ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও নেশার বিভিন্ন উপকরনাদি জব্দ করেছে। অচেতন নাদিমূল হককে চিকিৎসার জন্য বিভাগীয় উর্দ্ধতন কর্তৃপ¶ের মাধ্যমে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, তার সাথে থাকা নগদ ৩০ হাজার টাকা, কিছু ঔষধ, ম্যানিব্যাগ, কাগজপত্র ইত্যাদি তার পিতা-মাতার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।
এব্যাপারে নির্বার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট (রাজ¯^) মোঃ মিজানুর রহমান জানান, কার্যালয়ে আগুন লাগলেও সরকারী কোন গুরুত্বপূর্ন উপকরনের ক্ষতি হয়নি। আর যেহেতু নাদিমুল হক নয়ন অচেতন, তাই তার বক্তব্য নেয়া যায়নি। নয়নকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ ¯^াস্থ্য কমপ্লেক্সে তার পিতামাতার জিম্মায় চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে এবং এব্যাপারে একটি তদন্ত দল গঠন করে বিষয়টির রহস্য উদঘাটন করা হবে। তবে এ ঘটনার সাথে নয়ন জড়িত হলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *