Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌর এলাকার মর্দানা গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আবারো উত্তেজনা বিরাজ করছে। সাবেক কাউন্সিলর আঃ সালামের লোকজন বর্তমান কাউন্সিলর খাইরুল আলম জেমের পক্ষের এক সমর্থক মো. তানুর উপর হামলা করে কুপিয়ে জখম করেছে বলে অভিযোগ করছে প্রতিপক্ষ গ্রæপের প্রধান কাউন্সিলর খাইরুল আলম জেমের ভাই শফিকুল ইসলাম পাসবান। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে মর্দানা তেতুলিয়া গ্রামের মৃত হেফাজ উদ্দিনের ছেলে মো. তানু (৫১) খাস জমি থেকে মাটি কেটে একটি রাস্তা ভরাট করছিল। এসময় সাবেক কাউন্সিলর আবদুস সালামের লোক সাইদুর রহমানের ছেলে জমির উদ্দিন দলবল নিয়ে তানুর উপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক মারধর করে ও কোদাল দিয়ে কুপিয়ে মাথায় গুরুত্বর জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এঘটনায় পুরো মর্দানা এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি এম.এম ময়নুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি তাদের পারিবারিক। এঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে বর্তমান পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য সম্প্রতি শিবগঞ্জ পৌর এলাকার মরদানা নামক এ ওয়ার্ডে  সাবেক কাউন্সিলর আঃ সালাম ও  বর্তমান কাউন্সিলর খাইরুল আলম জেমের পক্ষের মধ্যে আধিপাত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কয়েকদফা সংঘর্ষ, বাড়ি ঘরে আগুন এবং খুনের ঘটনা ঘটার পর গত ৬ মাস ধরে এলাকাটি শান্ত ছিল।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *