Sharing is caring!

শিবগঞ্জে কালি-মন্দির ভাঙচুর 

দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৫

♦ শিবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের লছমানপুর হিন্দুপাড়া গ্রামে একটি মন্দিরের জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে কালি মন্দির ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার বিকেলে এঘটনায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সংখ্যালঘু নারীসহ ৫ জন আহত হয়েছে বলেও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। আহতরা হচ্ছে, একই গ্রামের শ্রী সঞ্জয় সিং, মিনতি রানী, পূর্ণিমা, অমল ও হেবজুল আলম। আহতদের শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে হেবজুল আলমের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় সুত্র জানায়, রবিবার বিকেলে কালি মন্দিরের জায়গা জমি নিয়ে বিরোধে দুই পক্ষের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। শত বছরের পুরানো কালি মন্দিরটি ভেঙে গুড়িয়ে দেয় হেফজুল আলমসহ তার লোকজন। তাৎক্ষণিক শিবগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে। মন্দির পরিচালনাকারী কমিটির সদস্য আহত শ্রী সঞ্জয় সিং জানান, বহু বছর ধরে গ্রামে অবস্থিত আধা পাঁকা কালি মন্দিরটিতে স্থানীয় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা পূজা করে আসছিল। ঘরটি নষ্ট হওয়ায় রবিবার বিকেলে নতুন করে তা সংস্কারের উদ্দ্যোগ নেয়া হয়। এতে বাধা দেন স্থানীয় হেবজুল আলমসহ তার লোকজন। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ৫ জন আহত হয়। এদিকে, তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম, শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী রওশন ইসলাম, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কাঞ্চন কুমার দাসসহ রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা। এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে এবং মন্দিরের স্থানে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ পাহাড়া দিচ্ছে। উভয় পক্ষের মধ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনতে উদ্দ্যোগ নেয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান, বেশ কিছুদিন আগে থেকে মন্দিরের জমিটি দুইপক্ষ দাবী করে আসায় আদালতে মামলা রয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে এঘটনায় অপরাধীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *