Sharing is caring!

Chapai Pic 20.03.16চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ১৫ রশিয়ায় আজ রবিবার দুপুরে জমিতে সেচ দেয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় করিম নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ব্যাক্তি শিবগঞ্জ উপজেলার দুর্লভপুর ইউনিয়নের ১৫ রশিয়া মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত মালকেসুর হাজির ছেলে আঃ করিম(৫৫)। এ ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে রক্ত লেগে থাকা অবস্থায় একরামুলের স্ত্রী মোসাঃ ল্যাচন বিবি ও তার ছেলে মেহেরুল ইসলাম মেডুর স্ত্রী মৌসুমিকে আটক করেছে। পুলিশ জানায়, বেলা ১২টার দিকে ১৫ রশিয়া এলাকায় নিহত করিমের জমিতে শ্যালোমেশিন চালিত একটি সেচযন্ত্র হঠাৎ একই এলাকার একরামুল হক চালু করে তার জমিতে সেচ দেয়া আরম্ভ করে। খবর পেয়ে করিম ঘটনাস্থলে গিয়ে একরামকে এর কারন জানতে চাইলে একরাম ও তার ২ ছেলে মেহেরুল ইসলাম মেডু, জহরুল এবং একই এলাকার কলি ও উলি করিমের উপর মারমুখি হয়। এর এক পর্যায়ে এদের মধ্যে একজন করিমের মাথায় কোদালের ব্যাট দিয়ে আঘাত করলে গুরুতর আহত অবস্থায় শিবগঞ্জ হাসপাতালে নেয়া হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করিমকে মৃত ঘোষনা করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুর্লভপুর ইউপির ১৫ রশিয়া মধ্যপাড়া গ্রামের আঃ করিম রোববার সকাল প্রায় সাড়ে ১০টার দিকে পার্শ্ববর্তী এলাকা ৪০-রশিয়া মাঠে তার নিজস্ব জমির ভুট্টা ক্ষেতে পানি দেওয়া নিয়ে জমির পাশ্ববর্তী অর্থাৎ ৪০-রশিয়া গ্রামের মৃত সাবুদ্দীর ছেলে একরামুলের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে একরামুলের ২ ছেলে জোহরুল ইসলাম ও মেহেরুল ইসলাম মেডো ও একই এলাকার সুক্কার ২ ছেলে অলি আহমদ ও জাহাঙ্গীর আলম এবং একরামুলের স্ত্রী ল্যাচন এসে তারা একত্রিত হয়ে আঃ করিমকে বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটাতে শুরু করে। এক পর্যায়ে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তারা এলাকা থেকে পালিয়ে যায়। এসময় আশপাশের লোকজন আহত করিমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল নেওয়ার পথে মারা যায়। এসংবাদ লেখার আগ পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে নিহত করিমের পরিবারের লোকজন জানায়। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এম.এম ময়নুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা শিকার করে জানান, পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং ইতিমধ্যেই ল্যাচন ও মৌশুমি নামে ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *