Sharing is caring!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি \ শিবগঞ্জের কানসাট পল্লী বিদ্যুৎ অফিস মোড়ে মাদকবাহী ট্রাক চাপায় ২ পুলিশ কর্মকর্তার নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া ট্রাক চালক সিরাজুল আদালতে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দী দিয়েছে। বৃহস্পতিবারের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ট্রাক চালককে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নেয়া হলে ট্রাক চালক হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দী প্রদান করে। শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এম.এম ময়নুল ইসলাম জানান, ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার অনুরাগ গ্রামের আওয়াল আলির ছেলে আটক ট্রাক চালক সিরাজ (৩৮) পুলিশের নিদের্শ অমান্য করে তাদের উপর দিয়ে ট্রাক চালিয়ে হত্যার ঘটনায় শুক্রবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নেয়া হলে বিচারক মোঃ শহিদুল ইসলামের সামনে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় নিজের দোষ স্বীকার করেন। তিনি আরও জানান, ট্রাক চালক সিরাজকে রিমান্ডের আবেদন জানানোর আগেই সে তার হত্যার দোষ স্বীকার করে নেয়ায় আর রিমান্ডে নেয়ার প্রয়োজন নাই। এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে শিবগঞ্জ থানায় ডিবি পুলিশের ইন্সিপেক্টর (এস.আই) আবদুল্লাহ আল মামুন বাদী হয়ে ট্রাক চালক সিরাজকে প্রধান আসামী করে এজাহার নামীয় ৩ জন এবং অজ্ঞাত আরও ৫/৬ জনকে আসামী করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি এবং একই সময় শিবগঞ্জ থানার এস.আই হাফিজুর রহমান ২ পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যার দায়ে ট্রাক চালককে প্রধান আসামী এবং ট্রাক চালকের সহকারী আনোয়ার ও ফেনসিডিল ব্যাবসায়ীসহ ৩ জনকে এজাহার নামীয় আসামী করে আরও একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। উল্লেখ্য, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে শিবগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ মোড়ে কর্তব্যরত ২ পুলিশ অফিসার শিবগঞ্জ থানার এস.আই সাদিকুল ইসলাম ও সার্জেন্ট আতাউল ইসলাম কানসাট গোপালনগর মোড়ে একটি ট্রাককে থামানোর জন্য সংকেত দেয়। এ সময় ট্রাকটি সংকেত অমান্য করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ অভিমুখে আসার সময় এস.আই সাদিকুল ও সাজেন্ট আতাউল মাদকবাহী ট্রাকটিকে ধাওয়া করে কানসাট পল্লী বিদ্যুৎ মোড়ে ট্রাকটিকে থামানোর জন্য সংকেত দিলে ঘাতক ট্রাকটি তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই ২ পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশের একাধিক দল ও ডিবি পুলিশের একটি দল মাঠে নেমে ঘটনার প্রায় ৫ ঘন্টা পর বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে ১ হাজার ৪’শ ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ ট্রাক (ট্রাক নং ঢাকা-মেট্রো-ট-১৪-৮৯৪৮) এর চালক সিরাজকে আটক করে। দুপুরে খবর পেয়ে রাজশাহী রেঞ্চের ডিআইজি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ লাইনে নিহতদের লাশ দেখে বেলা ২টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তার উপস্থিতিতে মামলা ২ টি দায়ের করা হয় শিবগঞ্জ থানায়। এর আগে নিহত ২ পুলিশ কর্মকর্তার মৃতদেহ ময়না তদন্ত শেষে লাশ নিহতের নিজ নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *