Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ পারিবারিক কলহের জের ধরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হারানের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিবগঞ্জে ভাতিজার লাঠির আঘাতে চাচা নিহত হয়েছে। নিহত ব্যক্তি হলো, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দূর্লভপুর ইউনিয়নের দাদনচক চালকা পাড়া গ্রামের মৃত নেশ মোহাম্মদের ছেলে তসলিম উদ্দিন গেদু (৭০)। তসলিম উদ্দিনের স্ত্রী সুবেরা বেগম জানান, মঙ্গলবার সকালে পুত্রবধু চামেলীর (গরুকে খাবার দেয়ার পাত্র) একটি ডালি হারানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রথমে চামেলীর সাথে আমার দেবর সবুরের মেয়ে খাদিজার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যয়ে দেবর সবুর রহমান, তার ছেলে  সমীর(২৫) চামেলীকে গালিগালাজ করলে আমার স্বামী তসলিম ও ছেলে জেম প্রতিবাদ করলে সমীর লাঠি দিয়ে আমার স্বমীর মাথায় আঘাত করলে তাৎক্ষনিক মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে শিবগঞ্জ ও পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে তসলিম উদ্দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে মারা যায়। এদিকে এ ঘটনায় এস.আই সবুরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সবুরের ছেলে ও দাদনচক হেমায়েত উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র আমিনুলকে  আটক করেছে বলে দূর্লভপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবু আহমেদ নজমুল কবির জানান। তবে এস আই সবুর আমিনুলকে আটকের ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমিনুলকে থানায় আনা হয়েছে। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রমজান আলি জানান, লাশ রাজশাহী মেডিকাল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত হবে। কেউ কোন অভিযোগ না করায় মামলা হয়নি এবং কাউকে আটক করা হয়নি। অভিযোগ আসলে তদন্ত পূর্বক প্রযোজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *