Sharing is caring!

শিবগঞ্জ সংবাদদাতা \ এলাকার আধিপত্য বিস্তার এবং পূর্ব শত্রæতার জের ধরে সোমবার বিকালে পৌরসভার বর্তমান কমিশনার আব্দুস সালাম ও সাবেক কমিশনার সফিকুল ইসলাম পাশবানের গ্রæপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় উভয় পক্ষ একে অপরকে উভয় গ্রæপের ২ জন অপহরন হয়েছে দাবী করেছে। তবে অপহরণকৃত দ্ইু জনের মধ্যে একজনকে পুলিশ উদ্ধার করেছে এবং অপর জনের সন্ধান চালানো হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে শিবগঞ্জ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার ও মরদানা গ্রামের আলহাজ মোহাঃ মাইনুল আহসানের পুত্র মোহাঃ সফিকুল ইসলাম পাশবান(৫০) রানীহাট্টি বাজার যাবার পথে ঢোড়বোনা নামক স্থান থেকে প্রতিপক্ষ বর্তমান কমিশনার ও একই গ্রামের মোহাঃ আতাউর রহমান মাস্টারের পুত্র মোহাঃ আবদুস সালামের লোকজন প্রথমে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর পর অপহরন করে। তবে অন্য একটি সূত্র জানায় একই দিন একই সময় কমিশনার আব্দুস সালামের ছোট ভাই মোহাঃ আব্দুস সামাদকে (৪০) রানীহাট্টি বাজার এলাকা থেকে কে বা কারা অপহরন করে নিয়ে গেছে। আর আব্দুস  সালামের আত্মীয়দের দাবী সাবেক কমিশনার মোহাঃ সফিকুলের লোকজনই আব্দুস সামাদকে অপহরণ করেছে। এ ঘটনার জের ধরেই উভয়পক্ষের মধ্যে চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে উভয়পক্ষ সটকে পড়ে। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার এস আই ওসমান গণি জানান, তাদের পারিবারিক কোন্দলের পূর্ব জের ধরে এ সংঘর্ষ ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি আরো জানান খোঁজাখুঁজির পর সন্ধ্যার পর সাবেক কমিশনার সফিকুল ইসলামকে একটি মাঠ থেকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে এবং অপর পক্ষের আব্দুস সালামের ভাই আব্দুস সামাদকে খোঁজাখুঁজি চলছে। পুলিশের দাবী পরিস্থিতি বর্তমানে পুলিশের নিয়ন্ত্রনে আছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *