Sharing is caring!

শিবগঞ্জে দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাসে ৫ বছরে উন্নয়ন কর্মকান্ড

♦ স্টাফ রিপোর্টার 

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধিন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে জেলার শিবগঞ্জে দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাসে গত ৫ বছরের ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালিত হয়েছে দাবী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের। বুধবার দুপুরে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম উন্নয়নের এসব উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন। তিনি জানান, উপজেলায় দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাসে গ্রামীণ রাস্তায় ৫৫টি সেতু/কালভার্ট প্রকল্প নির্মাণ, গ্রামীণ মাটির রাস্তায় হেরিং বোন বন্ড-এইচবিবি করণ প্রকল্পের আওতায় ১২ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ, দুর্যোগ সহনীয় প্রকল্পে ৯২টি ঘর নির্মাণ, ৭৮৫টি সোলার বিদ্যুৎ স্থাপন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সংস্কার ও উন্নয়ন টিআর প্রকল্প ৭৩৫টি, গ্রামীণ মাটির রাস্তা সংস্কার কাবিখা/কাবিটা প্রকল্পের আওতায় ২শ’ মিটিার রাস্তা নির্মাণ। পাশাপাশি অগ্নিকান্ডে ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠান/পরিবারের মাঝে মানবিক সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ৬৫০ বান্ডিল ঢেউটিনসহ নগদ অর্থ সহায়তা এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত আহত ও নিহত ৪৫ ব্যক্তি/পরিবারের অর্থ সহায়তা প্রদান। এছাড়া ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা উদযাপন উপলক্ষে অসহায় ও দুঃস্থ পরিবারের মাঝে ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় খাদ্য সহায়তা প্রদান, অসহায়-দুস্থ ও শীতার্ত ৩৬ হাজার পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ, প্রাকৃতিক বন্যা ও নদী ভাঙন কবলিত ক্ষতিগ্রস্ত অসহায়-দুঃস্থ ৪শ’ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান। এদিকে প্রাকৃতিক বন্যায় পানিবন্দি ২ হাজার ১শ’ পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ, সনাতন ধর্মাবলীদের শারদীয় দূর্গাপূজা উদযাপন উপলক্ষে ১৮৫টি পূজা মন্ডপে জিআর চাউল প্রদান ও ৪শ’ ৫০ জেলে পরিবারের মাঝে ভিজিএফ চাউল বিতরণ করা হয়। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস জানিয়েছে- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর এ বছরে দেশের গৃহ ও ভূমিহীন ৬ লাখ ৮ হাজার পরিবারকে একটি করে পাঁকাবাড়ি নির্মাণ করে দেবে বর্তমান সরকার। প্রত্যেক বাড়ির সম্ভাব্য নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ লাখ টাকা। সে হিসাবে এ কর্মসূচিতে মোট ব্যয় হবে ২৪ হাজার ৩২০ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প, ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম প্রকল্প এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের নিয়ে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশিত প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। সারাদেশে ৩ লাখ ৮২ হাজার ৫১৪টি গৃহহীন পরিবার রয়েছে। এছাড়া ২ লাখ ২৬ হাজার ভূমিহীন পরিবার রয়েছে। এ ৬ লাখ ৮ হাজার ৫১৪টি পরিবারকেই পাঁকাবাড়ি করে দেবে সরকার। মুজিববর্ষে এটি প্রধানমন্ত্রীর উপহার। প্রতিটি ঘরের নির্মাণ ব্যয় ৪ লাখ টাকা ধরা হয়েছে। এতে রয়েছে- একতলা বিশিষ্ট দুই বেডের এই পাঁকা বাড়িতে থাকবে, ড্রয়িংরুম, বারান্দা, টয়লেট, কিচেনসহ একটি পরিবারের বসবাসের উপযোগী বাসগৃহ।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *