Sharing is caring!

শিবগঞ্জ আদিনা সরকারী ফজলুল হক কলেজ ক্যাম্পাসে অশোভন আচরনকারী বখাটের অনুরোধ না রাখায় আদিনা কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির উপর হামলাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা ও সচেতন মহল। অশোভন আচরণ করার প্রতিবাদ করতে গিয়ে বহিরাগত বখাটের হাতে মারধর খাওয়া এটা মোটেই ¯^াভাবিক বিষয় নয়। এঘটনার কঠোর ব্যবস্থা না নেয়া হলে বহিরাগতদের উৎপাত বেড়ে যাবে শিক্ষাঙ্গনে। শিক্ষাঙ্গনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে অবশ্যই দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি শিক্ষার্থীদের। উল্লেখ্য, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আদিনা সরকারী ফজলুল হক কলেজ ক্যাম্পাসে অশোভন আচরনকারী বখাটের অনুরোধ না রাখায় সে বখাটে আদিনা কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির উপর হামলা চালায়। সোমবার রাতে দাদনচক হলমোড়ে ঘটনাটি ঘটে। বখাটে ঐ যুবক একই উপজেলার দুর্ভলপুর ইউনিয়নের ১২ রশিয়া গ্রামের রানা। রানা নামের ওই বখাটে সোমবার সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রীদের সামনে সিগারেট খেতে খেতে অশোভন আচরন করার সময় কলেজের ছাত্রীরা তাৎক্ষনিক শিক্ষককে অভিযোগ দিলে শিক্ষকদের পক্ষ থেকে সেই বখাটে কে ক্যাম্পাস থেকে বের করে দেয়। এসময় বিক্ষুব্ধ সে বখাটে তার পূব পরিচিত কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সভাপতি রাশেল বাবুকে এর প্রতিবাদ করে মিছিল সমাবেশ করার অনুরোধ জানালে অসম্মতি জানায় রাশেল বাবু। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে এ ঘটনার জের ধরে সোমবার রাত ৯টার দিকে আদিনা কলেজ হল মোড়ে রাশেল বাবুর উপর হামলা চালিয়ে আহত করে সে বখাটে। এ ঘটনায় আদিনা সরকারী কলেজ ছাত্রলীগ তাদের সভাপতির উপর হামলার ঘটনায় বিচার চেয়ে মঙ্গলবার সকালে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়। বখাটের হামলায় আহত সে ছাত্রলীগ নেতাকে প্রথমে শিবগঞ্জ হাসপাতালে এবং পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এঘটনায় কলেজের ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক কিরন আলী ঘটনার সত্যতা শিকার করে জানায়, রানা নামের ছেলেটি অশোভন আচরন করায় এবং সে অত্র কলেজের ছাত্র না হওয়ায় বহিরাগতদের ক্যাম্পাসে এসে ক্যাম্পাসের পরিবেশ কোনভাবেই নষ্ট হতে দেয়া হবেনা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *