Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নে খঁড়িয়াল গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিক রানা বাড়িতে দুইদিন থেকে অনশন করছে দুই সন্তানের জননী মোসাঃ মিমি বেগম(২৫)। উপজেলার  মনাকষা ইউনিয়নে খঁড়িয়াল গ্রামের আব্দুল মানিকের মেয়ে মিমি (২৫)। মিমি বিনোদপুর ইউনিয়নের বিশ্বনাথপুর  গ্রামের কামাল উদ্দিনের স্ত্রী। জানা গেছে, বিনোদপুর ইউনিয়নের বিশ্বনাথপুর  গ্রামের কামাল উদ্দিনের সাথে ৭ বছর আগে মিমি বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে মিমি দুই সন্তানের জননী হয়। এছাড়া মিমির বিয়ের আগে রানা সাথে প্রেমের সম্পর্ক হয় তাঁর বিয়ের মাস তিনেক আগে। সেই প্রেমের কারণে দীর্ঘদিনে দাম্পত্য জীবনের দুই সন্তান ও ¯^ামী ছেড়ে প্রেমিক ¯œাতক ৩য় বর্ষের ছাত্র রানাকে বিয়ে দাবিতে অনশন করছে। আর এই অনশন নিয়ে চঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়।
এদিকে সরেজমিনে ঘটনাস্থল রানার বাড়িতে গিয়ে কথা হয় মিমি বেগমের সাথে। তিনি জানান, আমার বিয়ে হওয়া ৭ বছর হলো আর বিয়ের দুই মাস আগে থেকে রানার সাথে আমার প্রেমের সম্পর্ক। রানা নিয়মিত আমার সাথে যোগাযোগ করতো। তবে গত ১৮ তারিখ রবিবার গভীর রাতে আমার ¯^ামী আম বাগানে পাহাড়া দেয়ার সুযোগে রানা আমাকে ফোন দিয়ে আমার পিতার বাড়ি এসে আমার সাথে শয়ন ঘরে অবৈধকাজে লিপ্ত হয়। এ সময় আমার ¯^ামী হঠাৎ উপস্থিত হয়ে আমাদের হাতেনাতে ধরে ফেললে রানা আমার ¯^ামীকে ধাক্কা মেরে পালিযে যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রানা ও মিমির দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। বেশ কিছুদিন আগে তাদের দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করা হয়েছিল এবং রবিবার রাতে আবারো আটক করা হলে রানা মোবাইল ফোন, সেন্ডেল ও সিগারেটের প্যাকেট ফেলে পালিয়ে যায়। তবে বিষয়টি অ¯^ীকার করে রানার মা, বোন, ভাবী, চাচাতো ভাইসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা জানান, পূর্ব শত্রæতার জের ধরে মেয়ে প¶ এটি একটি নাটক সাজিয়েছে। তবে রানার সাথে ফোনে  যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনাটিকে ষড়যন্ত্র বলে আখ্যায়িত করেন। মিমির পিতা আব্দুল মানিক জানান, মেয়ের সিদ্ধান্ত মেয়েই নিয়েছে সেহেতু আমার বলার কিছুই নেই। সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য রবিউল ইসলাম জানান ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি। তবে কোন প¶ই আমার নিকট আসেনি। এব্যাপারে মনাকষা ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা শাহাদাৎ হোসেন খুররম বলেন মেয়েটি যেহেতু দুই সন্তানে জননী এবং বর্তমানে ¯^ামী আছে, সেহেতু এটি জটিল বিষয়। তবে চেষ্টা করি সামাজিকভাবে সমাধান করার।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *