Sharing is caring!

শিবগঞ্জে বাল্য বিয়ে দেয়ার চেষ্টার দায়ে

কাজির ছেলেসহ ৩জনকে কারাদন্ড

♦ শিবগঞ্জ সংবাদদাতা

জেলার শিবগঞ্জে বাল্য বিয়ে দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে কাজির ছেলেসহ ৩ জনকে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক। এ সময় বিয়েতে সহযোগীতা করার দায়ে বরের ২ প্রতিবেশিকেও অর্থদন্ড দেয়া হয়। শুক্রবার গভীর রাতে এ রায় প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বার্হী অফিসার চৌধুরী রওশন ইসলাম। দন্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছে, শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্ত্তি ইউনিয়নে কর্মরত ডুবলীভান্ডার গ্রামের কাজি আঃ মতিনের ছেলে মামুনুর রশিদ, বরের পিতা একই ইউনিয়নের বালুচর গ্রামের মোঃ শাহিন আলী(৪০), কনের পিতা বিমর্ষী গ্রামের ফজর আলী(৩৭), বরের প্রতিবেশী সাদ্দাম হোসেন (৩১) এবং জেন্টু আলী। আদালত কাজির ছেলেকে ২ বছর, বর ও কনের পিতাদের ১ বছর করে এবং প্রতিবেশী ২ সহযোগীকে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে ১০ দিনের জেল প্রদান করে। তবে অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে বর পালিয়ে যায়। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক চৌধুরী রওশন ইসলাম জানান, শুক্রবার গোপনে বর ও কনের ২ পিতা তাদের বন্ধুত্ব আরও মজবুত করতে চককীর্ত্তি ইউনিয়নের বিমষী গ্রামে কনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করে।বিষয়টি জানতে পেরে সেখানে অভিযান চালিয়ে বাল্য বিয়ে দেয়ার অপরাধে কাজির ছেলে মামুন, বরের পিতা শাহীন, কনের পিতা ফজর আলী ও একই ইউনিয়নের বালুচর গ্রামের বরের ২ প্রতিবেশি সাদ্দাম ও জেন্টু কে আটক করা হয়। পরে শুক্রবার রাত ১১ টার দিকে ভ্রাম্যমান আদালতে অভিযুক্তদের হাজির করা হলে বাল্য বিয়ে দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে কাজির ছেলে কে বাল্য বিয়ে পড়ানোর চেষ্টার অভিযোগে ২ বছর, বর ও কনের পিতা ২ বন্ধু কে এক বছর করে এবং বরের ২ প্রতিবেশিকে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। শনিবার সকালে দন্ডপ্রাপ্তদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *