Sharing is caring!


স্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলায় বুড়ো-বুড়ীর প্রেম নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। প্রেমের মিলন সময়ে আটক হয়ে শেষ বয়সে লাঞ্চিত ও শ্রীঘরে যেতে হলো প্রেমিক যুগলকে। প্রেম-ভালবাসার কথা অনেকে জানেন, শুনেছেনও। দেখেছেন কিশোর-কিশোরী, যুবক-যুবতীর প্রেমের খেলা। কিন্তু বুড়ো-বুড়ীর প্রেম হয়তো বা অনেকে দেখেননি? প্রেম-ভালবাসার কোন বয়স লাগেনা, লাগে শুধু মন। আর শেষ বয়সে এসে এক যুগল বুড়ো-বুড়ী নয়া প্রেমে মজেছেন। আর এই বুড়ো-বুড়ীর প্রেম-প্রীতি দেখতে ভীড় জমাচ্ছে উৎসুক জনতা। বুড়ো-বুড়ীর প্রেম-ভালবাসা বাস্তবতার রুপ দিতে হাতে-নাতে ধরা পড়ে এই প্রেমিক যুগল। আর এই ঘটনাটি ঘটেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের মনাকষা ইউনিয়নের খড়িয়াল শেখপাড়া গ্রামে। জানা গেছে, পরকীয়া প্রেমের সময় নজরুল দফাদার (৬৫) নামে এক প্রেমিককে আটক করেছে এলাকাবাসী। এছাড়াও এসময় ববিতা বেগম (৪৫) নামের এক প্রেমিকাকেও আটক করা হয়। তবে, প্রেমিক-প্রেমিকার বাড়ি একই এলাকার উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের খড়িয়াল শেখপাড়া গ্রামে। এলাকাবাসী জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে (শুক্রবার রাত ১ টার সময়) ববিতা বেগমের ¯^ামী সিরাজ আলী পাশের আম বাগানে পাহাড়ারত অবস্থায় থাকায় নজরুল দফাদার তার বাড়িতে ঢুকে পড়ে। এসময় সিরাজ আলী ঔষধ খাওয়ার জন্য বাড়িতে আসলে তাদের হাতে-নাতে ধরে ফেলে প্রেমিক যুগলকে। এঘটনাটি দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে, এলাকাবাসীও তাৎক্ষনিক শিবগঞ্জ থানায় সংবাদ দেয়। পরে থানা পুলিশ তাদেরকে থানায় নিয়ে আসে। এলাকাবাসী আরো জানায়, প্রেমিক নজরুল দফাদারের ৭ সন্তান ও প্রেমিকা ববিতা বেগমের ২ সন্তান রয়েছে। শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, বিষয়টি স্থানীয়দের মাধ্যমে জানার পর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের থানায় নিয়ে আসে এবং তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *