Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ২৯ জন মুক্তিযোদ্ধা বয়স, সনদপত্র ও ভারতীয় তালিকায় নাম থাকা না থাকাসহ বিভিন্ন জটিলতার কারনে দীর্ঘ ৯ মাস ধরে ভাতা উত্তোলন করতে না পারায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। ভাতা বন্ধ থাকা কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধার সাথে আলাপ করে জানা গেছে, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের একটি চিঠির পরিপ্রে¶িতে গত সেপ্টেম্বর মাস থেকে ৯ মাসের ভাতা বন্ধ থাকায় জাতির এ শ্রেষ্ঠ সন্তানরা নানাবিধ সমস্যার মধ্য দিয়ে পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তবে সবচেয়ে কষ্টের কথা সামনে ঈদুল ফিতর যেন তাদের জন্য আনন্দের না হয়ে দুঃখের দিন হতে যাচ্ছে। কারণ ঈদে ভালমন্দ পোশাক ও ভাল খাবার ক্রয় করা তো দূরের কথা সাধারণ খাবারও জুটবে বলে মনে হয় না এ সূর্য তরুনদের। কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা ক্ষোভের সাথে জানান, মনাকষা ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা জিন্নুর রহমান দীর্ঘদিন যাবত ক্যান্সার রেগে আক্রান্ত হয়ে টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে কিছুদিন আগে মারা গেছেন। তার পরিবার এখন প্রায় অনাহারে মানবেতর জীবনযাপন করছে। শুধু তারা দুজনই নয় মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন, আঃ লতিফ, বদরুল উদ্দিন মাস্টার, সাদিকুল ইসলাম, মোজাফর হোসেন ফজলুর রহমানসহ ২৯ জন মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সকলের পরিবারের একই ভাষ্য। তারা সবাই ঈদের আগে তাদের সবার ভাতা ছাড় দিয়ে ভাতা উত্তোলনের মাধ্যমে যেন তারা সবাই আনন্দের সাথে ঈদুর ফিতর উদযাপন করতে পারেন তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্ত¶েপ কামনা করেছেন। শিবগঞ্জ উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার কাঞ্চন দাস জানান, গত ৩১ জানুয়ারী ২০১৬ ইং তারিখের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের একটি পরিপত্রে যে মুক্তিযোদ্ধাদের বয়স, সনদপত্রসহ বিভিন্ন কাগজপত্রে ত্রæটি রয়েছে তাদের মুক্তিযোদ্ধা ভাতা উত্তোলন স্থগিত করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। সে মোতাবেক শিবগঞ্জ উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা যাচাই-বাছাই করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে সভাপতি করে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের একজন  প্রতিনিধি, সংসদ সদস্যের একজন প্রতিনিধি, থানা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও শিবগঞ্জ সমাজসেবা অফিসারসহ ৫সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠনের মাধ্যমে তাদের সমস্ত কাগজপত্র যাচাইবাছাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *