Sharing is caring!

vice chairman syma begumস্টাফ রিপোর্টার \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান সায়মা খাতুনকে রবিবার গভীর রাতে গ্রেফতার করেছে যৌথবাহিনী। চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতারকৃত উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বিএনপি জেলা মহিলা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপি মহিলা দলের সভানেত্রী। এর আগেও তিনি শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। মামলার বাদি বশির আহম্মেদ জানান, শ্যামপুর ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য উপজেলা পরিষদ থেকে প্রায় ৪ লাখ টাকা দেয়ার কথা ছিল, কিন্তু সে টাকা পরিষদকে না দিয়ে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোসাঃ সায়েমা খাতুন আত্মসাৎ করেছেন। আর আমি শ্যামপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হওয়ায় এবং অত্র ইউনিয়নের উন্নয়নের স্বার্থে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোসাঃ সায়েমা খাতুনের বিরুদ্ধে শিবগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজি মামলা করেছি। সেই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম এম ময়নুল ইসলাম জানান, রবিবার রাতে শ্যামপুর ইউনিয়নের ওমরপুর এলাকার বশির আহম্মেদের দায়ের করা একটি চাঁদাবাজির মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সায়মা খাতুনকে তার বাড়ি থেকে রাত আড়াইটার দিকে গ্রেফতার করে যৌথবাহিনী। গ্রেফতারকৃতের বিরুদ্ধে আরও অন্তত ২টি মামলা রয়েছে বলে নিশ্চিত করেন ওসি। এদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জে যৌথবাহিনী বিশেষ অভিযানে শিবগঞ্জ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান সায়েমা খাতুনসহ জেলায় ২১ জনকে আটক হয়েছে। জেলা পুলিশ কন্ট্রোল রুম জানায়, রোববার রাত থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত পৃথক অভিযানে ৪ বিএনপি, জামায়াত ও শিবির নেতা কর্মীসহ ২১ জনকে বিভিন্ন মামলায় আটক করেছে। এর মধ্যে সদরে ১ জামায়াত ১ শিবিরসহ অনান্য মামলায় ১২ জন, শিবগঞ্জে ২ বিএনপিসহ ৭জন ও ভোলাহটে ২ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের সোমবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠান হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *