Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ জেলার শিবগঞ্জ সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ে জমির মূল দলিলে ঘষা-মাজা করে জমির দাগ ও পরিমাণ পরিবর্তন করা হয়েছে বলে এক নকল নবিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে শিবগঞ্জ সাব- রেজিস্ট্রারের পক্ষ থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়ার ১০দিন পার হয়ে গেলেও অভিযুক্ত নকল নবিশ নোটিশের কোন জবাব দেয়নি বলে জানা গেছে। শিবগঞ্জ উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার নজরুল ইসলামের স্বারিত গেল ১৯ সেপ্টেম্বর একটি কারণ দর্শানোর নোটিশ সূত্রে জানা গেছে, নকল নবিশ মিজানুর রহমান স¤প্রতি ৫৬৯ নং বণ্টননামা দলিলের জাবেদা নকল প্রস্তুত করার সময় অসম্পূর্ণ দলিলটির জমির পরিমাণ কাটা আছে এবং দাগ ঘষা-মাজা করে পবিরর্তন করা হয়েছে। এনিয়ে নোটিশ পাঠানোর তিন দিনের মধ্যে জবাব চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারী করা হলেও অদ্যবদি কোন জবাব দেয়নি মিজানুর রহমান। উল্লেখ্য, স¤প্রতিকালে নকল নবিশ মিজানুর রহমান, কেরানী মতিউর রহমান ও সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরের আরো একজনসহ তিনজনের যোগসাজসে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ৫৬৯/১৭ নম্বর দলিলে জমির পরিমাণ ও দাগ ঘষা-মজা করে পরিবর্তন করেছে। ঘটনাটি জানাজানি হলে নকল নবিশ মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছেন। এব্যাপারে জানতে চাইলে নকল নবিশ মিজানুর রহমান কারণ দর্শানোর নোটিশ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ পর্যন্ত নোটিশের জবাব দেইনি। এব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার নজরুল ইসলামের সাথে ০১৭১১-৪১২৮৮৯ নম্বরে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তাঁর মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *