Sharing is caring!

শিশুশ্রম বন্ধের পরিকল্পনা গৃহীত

নিজস্বঅর্থায়নে২০২১সালেরমধ্যেঝুঁকিপূর্ণএবং২০২৫সালেরমধ্যেসকলপ্রকারশিশুশ্রমবন্ধেরপরিকল্পনাগ্রহণ করেছেসরকার।যেখানেবলাহয়েছেশিশুদেরকেঝুঁকিপূর্ণকাজথেকেসরিয়েএনেসরকারিভাবেইআলাদাপ্রশিক্ষণেরব্যবস্থাকরেএকটাসময়শেষেদক্ষশ্রমশক্তিতৈরিকরবেসরকার।প্রাথমিকধাপেপ্রায়২৮৪কোটি৪৯লাখটাকাব্যয়েঝুঁকিপূর্ণকাজেনিয়োজিতএকলাখশিশুকেঝুঁকিপূর্ণকাজথেকেসরিয়েআনাহবেবলেমন্ত্রণালয়েরপক্ষথেকেজানানোহয়েছে।

এ বিষয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান জানিয়েছেন, প্রশিক্ষণ ও কর্মমুখী শিক্ষার মাধ্যমে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত শিশুদের সরিয়ে আনতে ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ২০২১ সালের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ এবং ২০২৫ সালের মধ্যে সকল প্রকার শিশুশ্রম নিরসনে কাজ করছে সরকার।’

শিশুশ্রমনিরসনেরলক্ষ্যেকোনকোনখাতেকতশিশুশ্রমেনিয়োজিতরয়েছেতারসঠিকসংখ্যানির্ণয়েদেশব্যাপীজরিপেরওপরগুরুত্বআরোপকরাহয়েছেবলেজানানোহয়েছেসরকারেরপক্ষথেকে।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর জাতীয় শিশুশ্রম সমীক্ষা ২০১৩-এর তথ্য দিয়ে উল্লেখ করা হয়, দেশে সাড়ে ৩৪ লাখ শিশু কর্মরত রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ১৭ লাখ শিশু রয়েছে, যাদের কাজ শিশুশ্রমের আওতায় পড়েছে।

সভায়জানানোহয়, এপর্যন্তবিভিন্নখাতেরকারখানামালিকেরবিরুদ্ধে১৮৬টিমামলাকরাহয়েছে, এরমধ্যে৫১টিমামলানিষ্পত্তিকরাহয়েছেএবং১৩৫টিমামলাচলমানরয়েছে।যেখানেকলকারখানাওপ্রতিষ্ঠানপরিদর্শনঅধিদপ্তরশিশুশ্রমসংক্রান্তকার্যক্রমমনিটরিংকরছেএবংকোনকারখানামালিকশ্রমেশিশুদেরনিয়োগদিয়েথাকলেআইনানুগব্যবস্থানেয়াহচ্ছেবলেসভায়জানানোহয়েছে।

কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের ইন্সপেক্টর জেনারেল সৈয়দ আহম্মদ জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত শিশুশ্রম-সংক্রান্ত ৪৬ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে শিশুশ্রম বন্ধে মালিকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী শিশুদের শ্রমে নিযুক্ত করাকে এক ধরণের ‘নীচু মানসিকতা’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। বলেছেন, অনেকেই বাইরে বড় বড় মানবাধিকারের কথা বলেন। অথচ তারাই তাদের বাসায় শিশুদের গৃহশ্রমিক হিসেবে নিয়োগ দেন।

তিনি বলেন, শিশুশ্রম নিরসনে জাতীয় পর্যায় থেকে শুরু করে উপজেলা পর্যায়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কাজে কমিটিগুলোকে আরো সক্রিয় এবং শক্তিশালী করা হবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম আর যাতে অর্ধ-শিক্ষিত না থাকে তার ব্যবস্থা করতে হলে সবাইকে আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *