Sharing is caring!

‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের শক্তিতে

শাহরিয়ারের বদলির আদেশ বাতিল’

নিউজ ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জনসচেতনামূলক কাজের চিত্র যেমন উঠে আসছে ঠিক তেমনি উঠে সমাজের নানা সমস্যা ও অসঙ্গতির কথা। দিন দিন এই মাধ্যমের উপর মানুষের নির্ভরশীলতা বাড়ছে তড়িৎ গতিতে। কিছু কিছু সময় কোনো অনুযোগ আর অভিযোগ এতটাই তীব্র প্রতিবাদের ভাষায় রুপ নিচ্ছে যে তা দাবি আদায়ের পাথেয় হয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি ভোক্তা অধিদফতর সংরক্ষণ কর্তৃপক্ষের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলির আদেশ জারির পর তা বাতিল করার ঘটনাটি সেরকই একটি জ্বলন্ত উদাহরণ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই প্রতিবাদের প্রভাব এতটাই তীব্র ছিল যে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় জনগণের প্রতি সম্মান দেখিয়ে বদলি আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা বাতিল করতে বাধ্য হয়।মন্ত্রণালয় সূত্র নিশ্চিত করে যে, আড়ংয়ের উত্তরা শাখাকে সাড়ে চার লাখ টাকা জরিমানা করা মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলির আদেশ বাতিল করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জনাব ফরহাদ হোসেন দোদুল এ নির্দেশ প্রদান করেন।
এর আগে সোমবার (৩ জুন) রাতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রেষণ-১ অধিশাখার এক প্রজ্ঞাপনে তাকে ভোক্তা অধিদফতর সংরক্ষণ কর্তৃপক্ষের উপ-পরিচালক পদ থেকে বদলি করে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর, খুলনা জোনের এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দিতে বলা হয়। সেই আদেশটি স্থগিত হওয়ায় স্বপদেই বহাল থাকছেন তিনি।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (নিয়োগ, পদোন্নতি, প্রেষণ অনুবিভাগ) শেখ ইউসুফ হারুন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলির আদেশ বাতিল হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে সোমবার রাতে এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের বিভাগীয় কার্যালয় ঢাকার উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারকে এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা হিসেবে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সড়ক ও জনপথ অধিদফতর, খুলনা জোনে ন্যস্ত করা হলো। আগামী ১৩ জুন তাকে বদলি করা কর্মস্থলে যোগ দেয়ার জন্য অনুরোধ করা যেতে পারে। নতুন কর্মস্থলে যোগ না দিলে ১৩ জুন বিকেলে তিনি বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত (স্ট্যান্ড রিলিজ) বলে গণ্য হবেন।

এরপরই শুরু হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড়। অনেকেই এই বলে ফেসবুকে পোস্ট করতে থাকেন যে, ‘‘একজন প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী রাষ্ট্র কর্তৃক পবিত্র দায়িত্ব পালন করার ফল যদি এই হয় তাহলে আর কেউ ভালো কাজে এগিয়ে আসবে না। টাকার কাছে দেশ জিম্মি হতে পারে না।’’ নানান তীর্যক ভাষায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা বদলির আদেশের প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। পরবর্তীতে সরকার জনগণের মতকে প্রাধান্য দিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলির আদেশ বাতিল করার উদ্যোগ নেন।

জানা যায়, সোমবার দুপুরে এক ক্রেতার অভিযোগের ভিত্তিতে আড়ংয়ের উত্তরা শাখায় অভিযানে নেতৃত্ব দেন মঞ্জুর শাহরিয়ার। মোহাম্মদ ইব্রাহিম নামে ওই ক্রেতার অভিযোগ, গত ২৫ মে তিনি আড়ংয়ের উত্তরা শাখা থেকে ৭১৩ টাকায় একটি পাঞ্জাবি কিনেছিলেন। ছয় দিন পর ৩১ মে ওই একই পাঞ্জাবি কিনতে গিয়ে দেখেন, সেটির দাম ১৩০৫ টাকা। বেশি দামেই পাঞ্জাবিটি কিনে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে অভিযোগ করেন তিনি। তার অভিযোগের ভিত্তিতে আড়ংয়ে অভিযান চালিয়ে সত্যতা পায় সংস্থাটি। এ সময় বেশি দাম রাখার কোনো কারণ জানাতে পারেনি আড়ংয়ের ওই শো-রুমের কর্মকর্তারা।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *