Sharing is caring!

সোনামসজিদ গণকবর ঝাঁড়ু দিলেন

শিবগঞ্জ ইউএনও

♦ স্টাফ রিপোর্টার 

স্বাধীনতার মহান মুক্তিযুদ্ধে পাক হানাদার বাহিনীর সদস্যরা মুক্তিবাহিনীদের নির্মমভাবে হত্যা করে সোনামসজিদ-বালিয়াদিঘীতে গণ কবর দিয়েছিল। স্বাধীনতার মহান মুক্তিযুদ্ধকালে ১৪ ডিসেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জকে হানাদার বাহিনীর হাত থেকে রক্ষা করে মুক্ত করেছিলেন এদেশের সূর্য সন্তানরা। পরবর্তীকাল থেকে ১৪ ডিসেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ মুক্ত দিবস ও সারাদেশে বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করা হয়। এই দিবসে সোনামসজিদ-বালিয়াদিঘীতে অবস্থিত গণ কবরটির জরাজীর্ণ ও আবর্জনায় ভরা এবং নোংরা অবস্থায় দেখে অনেকটা ক্ষোভে রাগাšি^ত হয়ে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌধুরী রওশন ইসলাম নিজ হাতে ঝাঁড়– নিয়ে পরিস্কার করতে শুরু করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন,  শিবগঞ্জ উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভূমি) মো. বরমান হোসেন, শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শিকদার মো. মশিউর রহমান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার বজলার রশিদ সোনুসহ মুক্তিযোদ্ধাগণ। সেখানে উপস্থিত শিবগঞ্জ উপজেলা সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ ক্ষোভের সাথে বলেন, গণকবর রক্ষণাবেক্ষন এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্ব জেলা প্রশাসনের। এজন্য আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের কোন দায় নেই। সারাবছর পরও আজকের এই দিনে গণকবরটি এভাবে অযতœ আর অপরিস্কার থাকায়, মুক্তিবাহিনীর শহীদদের প্রতি অশ্রদ্বাই বলা যায়। ভবিষ্যতে যেন একরম অবস্থা না দেখতে হয়, এজন্য প্রশাসনের প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধ জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *