Sharing is caring!

Mizanur Rahmanশিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শাহাবাজপুর ইউনিয়নের মিজানুর রহমান (২৩) নামে এক যুবককে আইনশৃক্সখলা বাহিনীর পরিচয়ে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেছে তার পরিবার। অন্যদিকে, পুলিশ এ অভিযোগ অ¯^ীকার করে উল্টো পুলিশ ও আইনশৃক্সখলা বাহিনীকে বেকায়দায় ফেলতে মিথ্যা এ অভিযোগ তুলেছে তার পরিবার বলে দাবী করেছে। আর এ জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে অনুসন্ধান শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ। মিজানের পিতা আইনাল হক জানান, বুধবার (১৭ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নের পারদিলালপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তার ছেলে মিজানুর রহমানকে আইনশৃক্সখলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। একই সুরে মিজানের ভাতিজা মোস্তাক (২০) ভাগনে সোহেল রানা (২৫) ও মিজানের চাচাতো ভাই ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সেতাউর রহমান জানান, ঐ দিন শিবগঞ্জ থানার এক এস.আই এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মিজানের বড় ভাই আসামী আরিফ ও সেতাউরকে ধরতে আসলে আসামীরা পালিয়ে গেলে তারা মিজানকে ধরে নিয়ে আসে। তিনি আরো জানান, এ ব্যাপারে শুক্রবার শিবগঞ্জ থানায় জিডি করতে গেলে জিডির কপি নিলেও তা এন্ট্রি না করে আমাদেরকে ফেরত পাঠান ডিউটি অফিসার। তবে আমরা কোর্টে জিডি করেছি। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার একটি সূত্র জানায়, মিজানুর রহমান আওয়ামীলীগ কর্মী এডু হত্যা মামলার (মামলা নং ২০,তাং ২০-০২-২০১৫) ২নং আসামী। ঢাকার পুলিশ  হেড কোয়াটারের তালিকায় জিএমবি হিসাবে তার নাম আছে এবং গত রমজান মাসে তাকে আটক করতে ঢাকা থেকে সিআইডির একটি দল এসেছিল কিন্তু তাকে পায়নি। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি রমজান আলী মিজানের পরিবারের অভিযোগ অ¯^ীকার করে জানান, পুলিশের কোন সদস্যই মিজানকে আটক করেনি। তবে এ ঘটনার পর তার পরিবারের নিকট থেকে তিনি বিষয়টি জেনে ব্যাপক অনুসন্ধান চালাচ্ছেন। মিজানের সন্ধান পেলেই বিষয়টি সাংবাদিকদের জানানো হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *