Sharing is caring!

সোনম কাপুর ও সালমান খান
 সোনম কাপুরের বয়স তখন ১৪ বছর। বাবার (অনিল কাপুর) অভিনীত ‘বিবি নাম্বার ওয়ান’ ছবির শুটিং দেখার অনুমতি পেতে ঝগড়া পর্যন্ত করেছিলেন তিনি। কারণ ওই ছবিতে সালমান খানও ছিলেন। শেষমেষ জয়ী হন অনিল-তনয়া। তারপর কী হলো? সোনম বললেন, ‘ভ্যানিটি ভ্যানে এক ঘণ্টা আমরা কথা বললাম। কিন্তু ওই ঘটনা এখন আর সালমানের মনে নেই।’ সালমান খানের ভক্ত ছিলেন যিনি, সেই সোনম এবার পর্দায় তার প্রেমিকা হলেন। ছবির নাম ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’। এর ট্রেলার প্রকাশনা অনুষ্ঠানেই স্মৃতি হাতড়ে কথাগুলো বললেন ৩০ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী।  এ ছবির মাধ্যমে দীর্ঘ ১৬ বছর পর সুরজ বরজাতিয়ার পরিচালনায় অভিনয় করলেন সালমান। ১৯৮৯ সালে সুরজের প্রথম ছবি ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’র নায়ক ছিলেন তিনিই। তারপর ‘হাম আপকে হ্যায় কৌন’, ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবিতেও জুটি বাঁধেন তারা। এবার ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ ছবিতে আবার সুরজের প্রেম চরিত্রে দেখা যাবে সালমানকে।  ট্রেলারের আগে প্রকাশিত হয় ছবিটির দুটি পোস্টার। একটিতে নীল রঙা পোশাক পরে উল্টো দিকে মুখ ঘুরিয়ে রেখেছেন সালমান, অন্যটিতে রেশমি ঝালর বসানো কলম দিয়ে তিনি লিখছেন সোনমের পিঠে। ‘সাওরিয়া’র পর আবার একসঙ্গে পর্দায় রোম্যান্স করতে দেখা যাবে তাদেরকে। দীপাবলী উপলক্ষে আগামী ১২ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ প্রেমের কাহিনি। এতে পুরনো লাভারবয় ইমেজে পর্দায় আসবেন সালমান। প্রেম, অর্থ, লালসা, হিংসা সবকিছুর এক নিটোল বুননে সুরজ বরজাতিয়া তৈরি করেছেন এই ছবি। এতে সালমানকে দেখা যাবে দ্বৈত ভূমিকায়। একদিকে তিনি রাজা, অন্যদিকে তিনি সাধারণ মানুষ। রাজার নাম প্রেম আর সাধারণ মানুষটির নাম বিজয়। রাজার বিলাসবহুল জীবনযাত্রা পছন্দ নয়। সে চায় মাটির মানুষের কাছাকাছি থাকতে। রাজকার্য ছেড়ে রাজা কীভাবে খামখেয়ালে মন দেবে! সে একটু অমনোযোগী হলেই যে সৎ-ভাই নিরঞ্জন দখল করে নেবে সব সম্পত্তি। তাই প্রেমকে অপছন্দের জীবনেই আটকে থাকতে হয়। এর মধ্যে একদিন তার সঙ্গে দেখা হয়ে যায় বিজয়ের। নিজের চেহারার সঙ্গে বিজয়ের মিল দেখে প্রেম তাকে রাজা সাজিয়ে নিয়ে আসে প্রাসাদে। আর নিজে বেরিয়ে পড়ে এতোদিনের কাঙ্ক্ষিত জীবনের খোঁজে। রাজকুমারী মৈথিলী তো আর সেটা জানে না! তার প্রেমকাহিনি বয়ে চলে বিজয়ের সঙ্গেই। এখানেই দানা বাঁধে জমাট রহস্য।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *