Sharing is caring!

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি \ পাথরের দাম দফায় দফায় বৃদ্ধি এবং ডাস্ট মিশ্রিত নি¤œমানের পাথর রপ্তানীর ফলে অনেকটা বাধ্য হয়ে পাথর আমদানী বন্ধ করে দেয়া সমস্যা সমাধানের জন্য আলোচনা সভা বসছে আজ বুধবার সোনামসজিদ স্থলবন্দরে। বুধবার দুপুরে বাংলাদেশী পাথর আমদানীকারক ব্যবসায়ী ও ভারতীয় রপ্তানীকারকদের এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভা ফলপ্রসু সিদ্ধান্ত হলে আবারো পাথর আমদানী শুরু হবে বলে আশা করছেন ব্যবসায়ীরা। পাথর সংক্রান্ত বন্দর এলাকায় উদ্ভুত সমস্যা সমাধান হলেও ভারতের সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত আকশ্মিক দাম বৃদ্ধি এবং নি¤œমানের পাথর নিয়ে বুধবার দুপুরে বাংলাদেশী ব্যবসায়ী ও ভারতীয় রপ্তানীকারকদের এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। আমদানী কারক গ্রæপের সাধারন সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাবু জানান, সোমবার দুপুরে ব্যবসায়ীদের একটি দল কাষ্টমস কমিশনার মোয়াজ্জম হোসেনের সাথে বন্দরের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনায় বসেন। বৈঠকে পাথর আপমদানীর ¶েত্রে অগ্রিম ট্্যাক্স দেয়া সাপে¶ে বন্দরের অভ্যান্তরে পাথরবাহী ট্রাক প্রবেশ না করিয়েই ১ নং স্কেলে পাথরবাহী ট্রাক ওজন করিয়ে বন্দরের বাহিরে পাথর খালাসের সিদ্ধান্ত হয় এবং ২য় স্কেলে খালি ট্রাক ওজনের সিদ্ধান্ত হয়। এদিকে, ভারতীয় রফতানিকারকদের দফায় দফায় পাথরের মূল্য বৃদ্ধি, সরবরাহে কৃত্রিম সংকট ও জটিলতা তৈরি করায় স্থলবন্দরের পাথর আমদানিকারক, সরবরাহকারী ও ব্যবসায়ীরা রবিবার থেকে ভারতীয় পাথর আমদানি অলিখিত ঘোষণা দিয়ে বন্ধ করে দেয়। বাংলাদেশী পাথর আমদানীকারকদের অভিযোগ রপ্তানীকারকরা কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে বাংলাদেশি আমদানিকারকদের এক ধরনের জিম্মি করে অধিক মুনাফা আদায় করছে। ভারতীয় পাথর রফতানিকারকদের আচরণে ত্যক্ত-বিরক্ত দেশী আমদানিকরকরা সংকটের সমাধান না পেয়ে রবিবার থেকে পাথর আমদানি বন্ধের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়। দেশীয় আমদানিকারকরা অভিযোগ করছেন, দফায় দফায় পাথরের মূল্য বৃদ্ধি, পাথরবাহী ভারতীয় ট্রাককে সরাসরি বাংলাদেশে ঢুকতে না দিয়ে মহদীপুরে ডাম্পিং করা এবং সেখানে নিম্নমানের পাথর মেশানো, ইচ্ছাকৃত যানজট সৃষ্টির মতো কৃত্রিম সংকট তৈরি করে দেশীয় আমদানিকারকদের বিপাকে ফেলে ফায়দা লুটতে চাচ্ছে ভারতীয় রফতানিকারকরা। এ ব্যাপারে ভারতের সাথে চলমান পাথর আমদানী বিষয়ে ফোনে আলোচনার প্রেক্ষিতে ১৫ মার্চ বুধবার উভয় দেশের প্রতিনিধিদের মাধ্যমে ফলপ্রসু আলোচনা সাপে¶ে পুনুরায় পাথর আমদানী শুরু হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন আমদানী কারক গ্রæপের সাধারন সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাবু। তিনি আরও জানান ভারতীয় রপ্তানীকারকদের সাথে আলোচনার আগ পর্যন্ত তাদের পাথর আমদানী বন্ধ থাকবে।

আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *